Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:১৫ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ড. হাছান মাহমুদ
ড. হাছান মাহমুদ, ফাইল ফটো

‘ঐক্যফ্রন্ট বিশৃঙ্খলা করলে উপযুক্ত জবাব’

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সমাবেশের নামে দেশে কোন বিশৃঙ্খলা করলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তার উপযুক্ত জবাব দেয়া হবে।

তিনি আজ সোমবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে আয়োজিত ‘অশুভ শক্তি বিএনপি-জামায়াত-কামাল গংদের রুখে দাঁড়াও দেশবাসী’ শীর্ষক এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

আওয়ামী লীগের অন্যতম মুখপাত্র ড. হাছান বলেন, ২০১৪ সালে নির্বাচনের আগে বিএনপি-জামায়াত দেশব্যাপী যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছিল এমন কোন ঘটনা সিলেটে ঘটানোর চেষ্টা করলে তার উপযুক্ত জবাব দেয়া হবে।

তিনি বলেন, গত ৫ জানুয়ারির দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা করেও তারা তা পারেনি। এখন তারা আবার নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে। তাই আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। তাদেরকে রাজনীতির মাঠ থেকে চিরতরে উৎখাত করতে হবে।

বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. হাছান বলেন, মেয়াদ উত্তীর্ণদের নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হয়েছে। অতি শীঘ্রই এই জাতীয় ঐক্যফন্ট থেকে অনেকেই বেরিয়ে আসবে। এটা জাতীয় ঐক্য নয়, মেয়াদ উত্তীর্ণদের ঐক্য।

তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া জেলে আর তার পুত্র তারেক রহমান পলাতক। আর বিএনপি নেতারা গর্তে। জাতীয় ঐক্যের মূল উদ্দেশ্য খালেদা জিয়াকে মাইনাস করা। ইতিমধ্যে ড. কামাল হোসেন মাইনাসের ষড়যন্ত্রে কিছুটা হলেও সার্থক হয়েছেন। খালেদা জিয়াকে মাইনাস করেছেন।

ড. হাছান বলেন, বিএনপি নেতাদেরকে বলবো আপনাদের সর্ষের মধ্যেই ভূত আছে। বিএনপির রাজনীতি এখন বিএনপির হাতে নেই। তাদের রাজনীতি মির্জা ফখরুল ও ড. কামালদের হাতে চলে গেছে।

চিত্রনায়িকা নুতনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগ নেতা এড. বলরাম পোদ্দার, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আকতার হোসেন ও বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা।