Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:২১ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)
এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)

এশিয়ায় জলবায়ু তহবিল বৃদ্ধিতে চুক্তি স্বাক্ষর

এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক এবং গ্রীণ ক্লাইমেট ফান্ডের মধ্যে আজ একটি অ্যাক্রিডিটেশন চুক্তি (এএমএ) স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই চুক্তির আওতায় সদস্য দেশগুলোর মধ্যে ব্যাংকের জলবায়ু অর্থায়ন জোরদার হবে।

এডিবির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই চুক্তির ফলে এশিয়া এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে জলবায়ু পরিস্থিতি মোকাবেলায় আরো অর্থ বরাদ্দে নতুন তহবিল সংগ্রহে এডিবি সক্ষম হবে।

এডিবি’র জেনারেল কাউন্সেল ক্রিস্টোফার স্টিফেন বলেন, জিসিএফ এবং এডিবির মধ্যে অ্যাক্রিডিটেশন মাস্টার এগ্রিমেন্টের ফলে আমাদের প্রতিষ্ঠানে মধ্যে সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ হবার পথ সুগম হলো।

জিসিএফ জলবায়ু মোকাবেলা প্রকল্প ও কর্মসূচি গ্রহণে সহায়তা প্রদানে আরো জোরালোভাবে কাজ করবে।

আজকের এই এএমএ’ স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে ২০১৫ সালের মার্চ মাসে অনুমোদিত এডিবি’র অ্যাক্রিডিটেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলো। এখন এডিবি সকল প্রকার প্রকল্পের জন্য বিশেষ করে সকল ধরনের পরিবেশ ও সামাজিক ঝুঁকি ক্যাটাগরির জিসিএফ তহবিল চেয়ে আবেদন করতে পারবে। এই তহবিল হবে ২০২০ সালের মধ্যে প্রতি বছরে ৬ বিলিয়ন মাকির্ন ডলারের অর্থ সহায়তা প্রদানে এডিবি’র নিজস্ব প্রতিশ্রুতির অতিরিক্ত।

জিসিএফ’র ভারপ্রাপ্ত জেনারেল কাউন্সেল রাউল হেরের বলেন, বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি অজর্নে এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল যেমন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে, তেমনি জলবায়ু পরিবর্তনজনিত পরিস্থিতি মোকাবেলায় এই অঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।
এডিবি’র জিসিএফ এ্যাক্রিডিটেশনের মেয়াদ ২০২০ সালের মাচ পযর্ন্ত কার্যকর থাকবে। প্রতি পাচ বছর পর পর পুনরায় এ্যাক্রিডিটেশন করাতে হবে।

সোঙ্গদো ভিত্তিক জিসিএফ জলবায়ু পরিবর্তন জনিত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় উন্নয়নশীল দেশসমূহের অর্থ সহায়তার আহবানে সাড়া দিতে একটি বৈশ্বিক তহবিল গঠন করে। উন্নয়নশীল দেশসমূহে গ্রীণ হাউস গ্যাস নিঃসরণ সীমিত অথবা বন্ধের প্রচেষ্টায় ১৯৪ টি দেশ নিয়ে ২০১০ সালে জিসিএফ প্রতিষ্ঠিত হয়।