Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:১৩ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

এলডিসিভুক্ত দেশসমূহের জন্য অর্থবহ শুল্ক ও কোটামুক্ত সুবিধা নিশ্চিত করা প্রয়োজন : বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী এবং বিশ্ববাণিজ্য সংস্থায় এলডিসিভুক্ত দেশসমূহের সমন্বয়কারী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, পণ্য ও সেবা খাতে এলডিসিভুক্ত দেশসমূহ বাণিজ্যিকভাবে অর্থবহ বাজার সুবিধা চায়। উন্নত বিশ্বে এলডিসিভুক্ত দেশসমূহের জন্য অর্থবহ শুল্ক ও কোটামুক্ত সুবিধা নিশ্চিত করা প্রয়োজন। বিগত মিনিস্টেরিয়াল মিটিংসমূহের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা জরুরি।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এলডিসিভুক্ত দেশসমূহের জন্য গৃহীত বালি প্যাকেজ, দোহা রাউন্ড এজেন্ডা বেশকিছু উন্নত দেশ বাস্তবায়ন করলেও কিছু উন্নত দেশ প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করছে। এলডিসিভুক্ত দেশসমূহ বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সহযোগিতায় বহুপাক্ষিক বাণিজ্য সুবিধার অগ্রাধিকার চায়। বাণিজ্য উদারীকরণ এবং ভারসাম্য নীতি ক্ষেত্রে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর ক্ষেত্রে সমান সুবিধা নিশ্চিত করা প্রয়োজন। হংকংয়ে জনস্বাস্থের জন্য যে ট্রিপস চুক্তির ঘোষণা হয়েছিল, সেখানে সিদ্ধান্ত ছিল এলডিসিভুক্ত দেশসমূহের জন্য শুল্ক ও কোটামুক্ত বাজার সুবিধা এবং সেবা খাতে ছাড় দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছিল।
বাণিজ্যমন্ত্রী আজ কেনিয়ার নাইরোবিতে বিশ্ববাণিজ্য সংস্থার মিনিস্টেরিয়াল কনফারেন্স-২০১৫ এর প্লিনারিসেশনে এলডিসিভুক্ত দেশসমূহের সমন্বয়কারী হিসেবে বক্তৃতাকালে একথা বলেন।
ট্রিপসচুক্তির সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য মন্ত্রী উন্নত বিশ্বকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, দোহা রাউন্ডের অন্যান্য সিদ্ধান্তসমূহ বাস্তবায়ন করতে হবে। তিনি বলেন, উন্নত বিশ্বে এলডিসিভুক্ত দেশসমূহের বাজার সুবিধা ১ দশমিক ২৪ শতাংশের বেশি নয়। তেলের ওপর প্রদত্ত সুবিধা বাদ দিলে এ সুবিধা শূন্য দশমিক ৭২ শতাংশ হবে। এলডিসি দেশসমূহে ৬ হাজার ১০০ কোটি মার্কিন ডলারের বাণিজ্য ঘাটতি রয়েছে। তবে তেলের ক্ষেত্রে বাণিজ্য উদ্বৃত্ত রয়েছে ৬ হাজার ৮০০ কোটি মার্কিন ডলারের। এ ক্ষেত্রে তেলসহ অন্যান্য বাণিজ্য বাদ দিলে কেবল উৎপাদন খাতে বাণিজ্য ঘাটতি রয়েছে ১৩ হাজার ২০০ কোটি মার্কিন ডলারের। বিশ্ববাণিজ্যে সেবা খাতে এলডিসিভুক্ত দেশসমূহের অংশীদারিত্ব মাত্র শূন্য দশমিক ৬৮ শতাংশ। এলডিসি দেশসমূহকে উৎপাদনক্ষমতা বাড়াতে নীতি গ্রহণের সুযোগ দিতে হবে, নাইরোবি সম্মেলনে এটা নিশ্চিত করতে হবে।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত সচিব (মহাপরিচালক, ডব্লিউটিও) অমিতাভ চক্রবর্তী, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যানসহ ব্যবসায়ী সংগঠনের প্রতিনিধিদল এ সম্মেলনে যোগদান করছে।