Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:৫৪ ঢাকা, সোমবার  ১৯শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

‘এবার পা কেটে নেয়ার চেষ্টা’

১৬ বছর আগে আবদুল আজিজের দু’হাত কেটে নিয়েছিল চরমপন্থীরা। এবার তার দু’ পা কেটে নিতে  এলোপাথাড়ি কুপিয়েছে মাদক ব্যবসায়ীরা।

ঝিনাইদহ উপজেলার কালীগঞ্জ শহরের আড়পাড়ায় গত শনিবার এ ঘটনা ঘটেছে। গুরুতর আহত আবদুল আজিজকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, কালীগঞ্জ উপজেলার বলিদাপাড়া গ্রামের ইসাহাক আলীর ছেলে ব্যবসায়ী আবদুল আজিজ।

পুলিশকে সন্ত্রাসীদের তথ্য দেয়ায় ২০০০ সালের ৩১ ডিসেম্বর উপজেলার সিংগী বাজারে চরমপন্থী দলের ক্যাডাররা তার দু’হাত কেটে নেয়।

এ ঘটনায় আজিজের বাবা ইসাহক আলী থানায় মামলা করেন। তবে ২০০৩ সালে রাজনৈতিক বিবেচনায় মামলাটি প্রত্যাহার করে নেয়া হয়।

এদিকে দু’হাত হারানোয় তার ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ হয়ে যায় আবদুল আজিজের। স্ত্রী জোৎছনা বেগম, মেয়ে হাজেরা খাতুন ও ছেলে বোরাক আলীকে নিয়ে অভাবের জীবন শুরু হয় তার।

তবে কষ্টের জীবনেও অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন আবদুল আজিজ। এলাকায় মাদক ব্যবসায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কণ্ঠ ছিলেন তিনি।

এর জের ধরে শনিবার রাতে কালীগঞ্জ শহর থেকে আড়পাড়া দিয়ে বাড়িতে ফেরার পথে ৪-৫ জন সন্ত্রাসী তার উপর হামলা চালায়।

সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার দু’পা কেটে নেয়ার চেষ্টা করে। তবে পথচারীরা এগিয়ে আসলে রক্ষা পান তিনি। পরে তাকে উদ্ধার করে তাকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

কালীগঞ্জ থানার ওসি আনোয়ার হোসেন গনমাধ্যমকে জানান, রোববার সকাল ১০টার দিকে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।