দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ
দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ, ফাইল ফটো

এফআর টাওয়ার নির্মাণে অনিয়ম অনুসন্ধান করবে দুদক

রাজধানীর বনানীর ১৭ নম্বর রোডে এফআর টাওয়ার নির্মাণের অনিয়ম-দুর্নীতির অনুসন্ধান করবে দুদক বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

রোববার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত এক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, বনানীর এফআর টাওয়ার নির্মাণে যে অনিয়ম-দুর্নীতি হয়েছে তার অনুসন্ধান করবে দুদক।

বনানীর দুর্ঘটনা নিয়ে তিনি বলেন, আমি শঙ্কিত। এই অনিয়ম নিয়ম হয়ে গেলে বনানীর মতো ট্র্যাজেডির ঘটনা আরও ঘটতেই থাকবে। এই নিয়ম বন্ধ করতে হবে। এই অনিয়ম-দুর্নীতিগ্রস্তরা আদালত থেকে ছাড়া পেলেও দুদক তাদের ছাড়বে না।

তিনি শপথ করে বলেন, কথার চেয়ে কাজ করে দেখিয়ে দিতে চাই- ২০১৯ সাল হবে কাজের বছর।

ইকবাল মাহমুদ হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, যেসব দুর্নীতিবাজ লুটপাট করেছেন এবং এসব কাজে যারা অংশীদার হয়েছেন, তাদের কাউকে ছাড়া হবে না। যারা সরকারি সম্পতি-রেল-পূর্ত ও বন বিভাগের সম্পত্তি গ্রাস করেছেন, তারা সাবধান হয়ে যান। জনগণের সম্পত্তি ফিরিয়ে দিন, তা না হলে আমরা যা করার তাই করব।

ইকবাল মাহমুদ আরও বলেন, এ ছাড়া যারা জনগণের অর্থ নিয়েছেন, তারা ফেরত দিন না হলে আমরা ব্যবস্থা নেব। এতে শতভাগ না হলেও অন্তত ১০ ভাগ আমরা সফল হব।