ব্রেকিং নিউজ

ভোর ৫:৫৩ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

এটিএম বুথের ডাটা লিকেজ বন্ধে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশ

এটিএম বুথের ডাটা লিকেজ বন্ধে সব ব্যাংককে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।  শুক্রবার এ নির্দেশনা জারি করা হয়।

একটি বেসরকারি ব্যাংকের এটিএম কার্ডধারী অন্তত ২১ জন গ্রাহকের হিসাব থেকে টাকা উধাও হওয়ার ঘটনায় এ সতর্কতা জারি করা হয়।

এ নির্দেশনার পর থেকে বিভিন্ন ব্যাংক তাদের নিজস্ব এটিএম বুথ ছাড়া অন্য ব্যাংকের বুথ থেকে টাকা তোলার সুযোগ সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে।

এদিকে এটিএম বুথে জালিয়াতির ঘটনা বাংলাদেশ ব্যাংক তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ব্যাংকটির ডেপুটি গভর্নর এসকে সুর। তিনি আজ শনিবার সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

বেসরকারি ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের (ইবিএল) কর্তৃপক্ষ জানায়, তাদের ২১টি গ্রাহক হিসাব থেকে অন্য কেউ টাকা তুলে নিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন।

বিষয়টি খতিয়ে দেখে তারা দ্রুত বাংলাদেশ ব্যাংককে অবহিত করেন। তারা নিজেদের এটিএম কার্ড সেবা সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়।

তবে সাইবার সন্ত্রাস, নাকি প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে এই টাকা উধাওয়ের ঘটনা ঘটেছে, তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সাধারণত ব্যাংক থেকে টাকা তুললে মুঠোফোনে খুদে বার্তা আসে। বৃহস্পতিবার সকালে ঘুম থেকে উঠেই এক গ্রাহক দেখেন তার মুঠোফোনে দুটি খুদে বার্তা এসেছে, যাতে বলা হয় রোকেয়া সরণিতে অন্য একটি ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে দুবারে ৪০ হাজার করে ৮০ হাজার টাকা তোলা হয়েছে।

কিন্তু তার এটিএম কার্ডটি বাসাতেই তার কাছেই ছিল।

তিনি প্রথমে ভেবেছিলেন হয়তো খুদে বার্তাটি ভুলভাবে এসেছে। এরপর ব্যাংক হিসাব পরীক্ষা করে দেখেন সত্যিই ৮০ হাজার টাকা কম।

এরপর তিনি ইবিএলের গ্রাহকসেবা বিভাগে অভিযোগ করেন। তখন তাঁকে জানানো হয়, এ রকম ঘটনা আরও কয়েকজনের সঙ্গেই ঘটেছে।

ওই গ্রাহক আরও জানান, ইবিএল থেকে তিনি একসঙ্গে ২০ হাজারের বেশি টাকা তুলতে পারতেন না। কিন্তু তার হিসাব থেকে দুবারে ৮০ হাজার টাকা তোলা হয়েছে বৃহস্পতিবার।