ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:৪৩ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

‘একেপি জামায়াতের জ্ঞাতি ভাই বলেই তুরস্কের প্রতিক্রিয়া’

মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির ঘটনায় তুরস্ক ঢাকা থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহারের মতো যে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে তাকে দেশটির রাষ্ট্রীয় অবস্থান নয় বলে দাবি করেছেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহরিয়ার কবির।

শাহরিয়ারের মতে, আদর্শিক কারণে তুরস্কের ক্ষমতাসীন দল জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টি-একেপি ও বাংলাদেশের জামায়াত জ্ঞাতি ভাই। এ কারণেই তুরস্ক প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছে।

বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধের বিচার আন্দোলনের শীর্ষ নেতা বলেন, ‌’তুরস্কে বর্তমানে যারা ক্ষমতায় রয়েছে সেই একেপি হচ্ছে জামায়াতে ইসলামের জ্ঞাতি ভাই। জামায়াতের নেতারা প্রায়ই তুরস্কে যাচ্ছেন এবং তাদের বোঝাচ্ছেন যে, বিচারের নামে এদেশে তাদের নানানভাবে ফাঁসিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তারা এসব কথা বিশ্বাসও করছেন এবং সেভাবেই সব বিবৃতি দিচ্ছেন।’

বিষয়টিকে দুর্ভাগ্যজনক উল্লেখ করে শাহরিয়ার কবির বলেন, এটি তুরস্কের দৃষ্টিভঙ্গি নয়। দেশটির একটি রাজনৈতিক দলের দৃষ্টিভঙ্গি।

তিনি আরও বলেন, আমি অনেকবার তুরস্কে গেছি। আমি দেখেছি ওখানকার বুদ্ধিজীবীরা এই ব্যাপারটা ভালোভাবেই বোঝেন।

তাদেরও মন্তব্য, যে দেশের যুদ্ধাপরাধী সেই দেশ বিচার করছে, সেটা নিয়ে তুরস্কের এত মাথা ব্যথার কি আছে!