Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:৫১ ঢাকা, শুক্রবার  ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
একনেকে ৩৭২৩ কোটি টাকার ১১ প্রকল্প অনুমোদন

একনেকে ৩৭২৩ কোটি টাকার ১১ প্রকল্প অনুমোদন

ঢাকা এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আধুনিকায়নসহ ১১ প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৭২৩ কোটি ৬ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৩ হাজার ৬০৩ কোটি ৬৭ লাখ টাকা, বৈদেশিক সহায়তা থেকে ৯৬ কোটি ৮৯ লাখ এবং বাস্তবায়নকারী সংস্থা থেকে পাওয়া যাবে ২২ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলানগর এনইসি সম্মেলনকক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় এসব প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল প্রকল্প সম্পর্কে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি বলেন, ঢাকা উত্তর, ঢাকা দক্ষিণ এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সক্ষমতা বৃদ্ধিকরণ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা উন্নয়নের মাধ্যমে ঢাকা ও চট্টগ্রাম শহরের পরিবেশে কার্বন নির্গমন হ্রাস এবং টেকসই বর্জ্য ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে ঢাকা ও চট্টগ্রাম শহরের স্যানিটারি অবস্থার উন্নয়ন করা হবে।এই প্রকল্পে জাপান সরকার (জাইকা) ৯৬ কোটি ৮৯ লাখ টাকা অনুদান সহায়তা দেবে বলে তিনি জানান।

‘প্রকিউরমেন্ট অব ইকুইপমেন্ট ফর সলিড ওয়েষ্ট ম্যানেজমেন্ট’ প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হবে ১৬০ কোটি ১২ লাখ টাকা। প্রকল্প সাহায্য ছাড়া বাকী অর্থ ৬৩ কোটি ২৩ লাখ টাকা সরকার বহন করবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এখন প্রাথমিক ধাপের প্রকল্প বাস্তবায়ন করছি। এগুলো হয়ে গেলে অর্থনীতি শক্তিশালী হবে।ফলে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়বে। জাপান ইউরোপ যেখানে ৫০ থেকে ১০০ বছর আগে যে কাজ করছে আমরা এখন তাই করছি।’ বর্তমানে যেসব প্রকল্প নেয়া হচ্ছে, এগুলো বাস্তবায়নের পর বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশের ব্যাপক অগ্রগতি হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

একনেক সভায় অনুমোদিত অন্য প্রকল্পগুলো হলো- শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে জেলা সদরে অবস্থিত সরকারি পোস্ট গ্রাজুয়েট কলেজসমূহের উন্নয়ন প্রকল্প, এটি বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১ হাজার ৬৯০ কোটি ৪৫ লাখ টাকা। ফরিদপুর টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট স্থাপন প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৯৭ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। সিলেট টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট স্থাপন প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৯৫ কোটি ৬৬ লাখ টাকা। বন্ড ব্যবস্থাপনা স্বয়ংক্রিয়করণ প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৮১ কোটি ১৫ লাখ টাকা। চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর স্থাপন প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৭৬ কোটি ৯১ লাখ টাকা।

এছাড়া শ্রম পরিদপ্তরাধীন ৬টি অফিস পুনঃনির্মাণ ও আধুনিকীকরণ প্রকল্প,এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৮ কোটি ৩৯ লাখ টাকা।অন্তর্বর্তীকালীন পানি সরবরাহ প্রকল্প,এতে ব্যয় হবে ৬১২ কোটি টাকা।
গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ (বরিশাল জোন) প্রকল্প,এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৫২১ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। খুলনা জেলা কারাগার নির্মাণ প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ২৫১ কোটি ৩ লাখ টাকা। কেরানীগঞ্জে বিউবোর নিজস্ব জমির ভুমি উন্নয়ন ও সীমানা দেয়াল নির্মাণ প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৭৮ কোটি ৪৩ লাখ টাকা।