ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১:৩৭ ঢাকা, বুধবার  ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

উত্থানে শুরু-এরপর টানা পতনের কবলে পড়ে শেয়ারবাজার

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় শেষ হয় লেনদেন।  এদিন শুরুতে বাজারে ব্যাপক ক্রয় চাপ ছিলো। এরপর টানা পতনের কবলে পড়ে বাজার। সূচকের পাশাপাশি কমেছে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অংকেও লেনদেনের পরিমাণ আগের দিনের তুলানায় কিছুটা কমেছে।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) দিনশেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৬৬৩ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ১২১ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৭৫৬ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩২৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১০৭টির, কমেছে ১৭৩টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার দর। আজ বাজারে টাকার অংকে মোট লেনদেন হয়েছে ৫২৭ কোটি ১৪ লাখ ৫২ হাজার টাকা।

এর আগের কার্যদিবস অর্থাৎ রোববার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৪ হাজার ৬৭৪ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১ হাজার ১২৪ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১ হাজার ৭৬৪ পয়েন্টে। আর ওইদিন ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছিল ৬০৮ কোটি ৩ লাখ ৪৬ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৮০ কোটি ৮৮ লাখ ৯৪ হাজার টাকা ১৩.৩০ শতাংশ।

এদিকে দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক আগের দিনের চেয়ে ১৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৮ হাজার ৬৬১ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৪৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৮১টির, কমেছে ১২৮টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের। যা টাকার অংকে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৫ কোটি ৩৪ লাখ ৬৩ হাজার টাকা।

এর আগের কার্যদিবসে সিএসইর সাধারণ মূল্যসূচক ১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৮ হাজার ৬৮৪ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ৪১ কোটি ৭৬ লাখ ৯০ হাজার টাকা।