Press "Enter" to skip to content

ঈদ শান্তিপূর্ণ পরিবেশে করার ব্যবস্থা করেছে ডিএমপি

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো: আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, আসন্ন পবিত্র ঈদ শান্তিপূর্ণ ও আনন্দঘন পরিবেশে উদযাপনের জন্য ডিএমপির পক্ষ থেকে সব ধরণের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, ঘরমুখী মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে বাড়ি যেতে পারে আবার ঈদ উদযাপন শেষে নিরাপদে ঢাকায় ফিরতে পারে সেজন্য নানামূখী কাজ করা হচ্ছে। বাস টার্মিনাল ও রেলওয়ে স্টেশনে যাতে কোনো সমস্যা না হয় সেজন্য গোয়েন্দা পুলিশ নজরদারী করছে।

আজ দুপুরে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে পথ শিশুদের মাঝে নতুন পোশাক বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন। এসময় ৪শ’ পথশিশুদের মাঝে ঈদের নতুন পোশাক বিতরণ করা হয়।

রাজধানীতে অদম্য বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের মজার ইশকুল ধানমন্ডি, শাহবাগ, সদরঘাট ও কমলাপুর এলাকার পথ শিশুদের মাঝে এই ঈদবস্ত্র বিতরণ করে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মজার ইশকুলের উদ্যোক্তা আরিয়ান আরিফসহ ডিএমপি’র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

ঈদ উৎসব প্যাকেটে- ছেলেদের জন্য একটি জিন্স প্যান্ট, শার্ট, বেল্ট, ঘড়ি ও চশমা এবং মেয়েদের জন্য ছিল ফ্রক, টাইস, চশমা, ঘড়ি ও মেকআপ বক্স।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, এবছর রোজা শুরুর আগে থেকেই গোয়েন্দারা অপরাধীদের নজরদারি করেছে। যার কারণে অপরাধীরা কোনঠাসা হয়ে পড়েছে। অভিযানের ফলে অনেকে গ্রেফতার হয়ে কারাগারে রয়েছে। পুলিশের তৎপরতার জন্যই অপরাধীরা নিয়ন্ত্রণে ও দমনে রয়েছে।

মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘আমরা পুলিশের লোক সারাদিন দায়িত্বপালন করি। রমজানে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণে ঢাকা শহরে দুই হাজার পুলিশ সদস্য রাস্তায় দাঁড়িয়ে সারাদিন ডিউটি করে। এমনকি প্রিয়জনদের সাথে ইফতার করতে পারে না। তারা রাস্তায় দাঁড়িয়ে একটা খেঁজুর ও এক গ্লাস পানি পান করে ইফতার করছে। এরপরেও মুখে হাসি দিয়ে নাগরিকদের সুবিধার স্বার্থে তারা দায়িত্ব পালন করছে।

চেকপোস্ট-তল্লাশি, ব্লক রেইড করছি যাতে করে সন্ত্রাসী বা দুর্বৃত্তরা শান্তিকামী মানুষকে যেন কষ্ট দিতে না পারে।

শেয়ার অপশন: