ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:৩৩ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মোহাম্মদ নাসিম
আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, ফাইল ফটো

ইলেকশন কেউ ঠেকাতে পারবে না : নাসিম

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ইলেকশন কেউ ঠেকাতে পারবে না। এ দেশে কেউ কোনোদিন ইলেকশন ঠেকাতে পারেনি।

তিনি বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। অহেতুক বিদেশে ঘোরাঘুরি করে কোনো লাভ হবে না। নির্বাচন হবেই। রেজাল্ট যা হয়, আমরা মেনে নেবো। প্রশাসন যখন আছে, মিডিয়া যখন আছে, বিদেশি পর্যবেক্ষকও আসবে। এ দেশে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করতে যারা ইচ্ছা আসুক। কোনো অসুবিধা নাই।’

মোহাম্মদ নাসিম আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরই) এক স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি বক্তব্যে এ কথা বলেন। ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি’র সাবেক সভাপতি মোস্তাক হোসেনের স্মরণে এই স্মরণ সভার আয়োজন করা হয়।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বড় দলগুলো ভিতরে ভিতরে নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। নির্বাচন দেশে হবেই। মুখে যে যত কথাই বলুক, বড় দলগুলো মাঠে ময়দানে প্রস্তুতি নিচ্ছে। ভেতরে সবাই প্রস্তুত হচ্ছে, আর বাইরে ফাঁকা আওয়াজ দিচ্ছে। এ আওয়াজ দিচ্ছে, যাতে কিছু আদায় করা যায় কি না।

তিনি বলেন, এই নির্বাচনের মাঠে যতবেশী দল আসবে, আসুক, আমরা তাদের স্বাগত জানাই। নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনা করবে। আজকে তথ্যপ্রযুক্তির যুগ, ইলেকট্রনিক মিডিয়ার যুগ, কেউ কোথাও কিছু করতে পারবে না। এক মুহুর্তে সমস্ত খবর সবার কাছে চলে যাবে। তাহলে কেন আমরা নিজেরা এ হুমিকিগুলো দেবো, একজনকে ছাড়া নির্বাচন করতে দেয়া হবে না।

বিএনপিকে উদ্দেশ্যে করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আপনারা যদি ইলেকশন করতে না চান, ভালো কথা। এর খেসারত আপনাদের দিতে হবে। একবার তো খেসারত দিয়েছেন, আবার দিতে হবে। কিন্তু ইলেকশন বাদ দিয়ে, ইলেকশন ঠেকিয়ে কোনো লাভ হবে না। এ দেশে কেউ কোনোদিন ইলেকশন ঠেকাতে পারেনি। ১৯৭০ সালেও বড় বড় নেতারা স্লোগান দিয়েছিল, কিন্তু বঙ্গবন্ধুর দৃঢ় প্রতিজ্ঞতার কারণে এ দেশে নির্বাচন হয়েছিল। সুতরাং ইলেকশন কেউ ঠেকাতে পারবে না।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শুক্কুর আলী’র সঞ্চলনায় স্মরণ সভায় সংগঠনের সাবেক সভাপতি শফিকুল করিম সাবু, মাহফজুর রহমান ও সাকাওয়াত হোসেন বাদশা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।