তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তাইয়িপ এর্দোয়ান
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তাইয়িপ এর্দোয়ান

ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা মানবে না তুরস্ক

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান বলেছেন, ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা মানবে না তুরস্ক। তিনি বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এমন নিষেধাজ্ঞা বিশ্বের ভারসাম্য ধ্বংস করবে।

মঙ্গলবার সংসদীয় কমিটির এক আলোচনায় এরদোগান এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞার কোনো অধিকার নেই যুক্তরাষ্ট্রের।

এরদোগান বলেন, আমরা কোনো প্রকার নিষেধাজ্ঞার অধিকার খুঁজে পাচ্ছি না। আমাদের মতামত হচ্ছে- এমন নিষেধাজ্ঞা বিশ্বের ভারসাম্য ধ্বংস করবে।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র জোর করে আন্তর্জাতিক আইন ও নীতি ভঙ্গ করে ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দিয়েছে। তিনি বলেন, আমরা সাম্রাজ্যবাদী পৃথিবী দেখতে চাই না। খবর আল জাজিরা

ওয়াশিংটনের ঘোষণা অনুযায়ী নতুন নিষেধাজ্ঞা সোমবার থেকে কার্যকর হয়েছে। ইরানের অর্থনীতি উদ্দেশ করে অর্থাৎ ব্যাংক ও তেলের ওপর এমন কঠোর নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দেয়া হয়েছে।

এছাড়া ৭০০ ব্যক্তি, স্বত্ব, বিমান ও জাহাজ কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। এর সঙ্গে ৫০ ব্যাংক ও বিদেশি অধীনস্থ কোম্পানি।

তবে মার্কিন সরকার চীন, গ্রিস, ভারত, তুরস্ক, ইতালি, জাপান, দ. কোরিয়া ও তাইওয়ানকে নিষেধাজ্ঞার বাইরে রেখেছে। তবে ১৮০ দিন পর্যন্ত তারা ইরানি তেল কিনতে পারবে।

এদিকে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত মঙ্গলবার জাপান সফরে বলেছেন, ‘আমি খোলাখুলি বলতে চাই, ইরানকে কোণঠাসা করে ফেলার প্রচেষ্টা বোকামি ছাড়া আর কিছু নয়। এ পদক্ষেপ অত্যন্ত ‘ভয়ঙ্কর’। মার্কিন সরকার নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ইরানের জনগণকে শাস্তি দিচ্ছে যা সম্পূর্ণ অনুচিত।’

২০১৫ সালে আমেরিকাসহ ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতার ভিত্তিতে এসব নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছিল। গত মে মাসে ট্রাম্প ওই সমঝোতা থেকে একতরফাভাবে তার দেশকে বের করে নেন।