ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:২৯ ঢাকা, সোমবার  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ইরাকে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২১

ইরাকের রাজধানী বাগদাদের শহরতলীতে শিয়া পূণ্যার্থীদের লক্ষ্য করে চালানো এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২১ জন হয়েছে। শনিবার এক আত্মঘাতী হামলাকারী গাড়ি চালিয়ে সোজা পূণ্যার্থীদের মাঝে গিয়ে বোমার বিস্ফোরণ ঘটান, এতে আরো ৪২ জন আহত হন।
 
ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার দায় স্বীকার করেছে। এছাড়া রাজধানীর ডোরা এলাকায় শিয়া বেসামরিক বাহিনীর একটি তল্লাশি চৌকিতে চালানো অপর আরেকটি বোমা হামলায় আরো দুইজন নিহত ও তিনজন আহত হন। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী এ হামলার দায় স্বীকার করেনি।
 
আইএসের সমর্থক বার্তা সংস্থা আমাক জানিয়েছে, নাহরাবান জেলায় আইএসের এক যোদ্ধা তিন টন বিস্ফোরক ভর্তি একটি ট্রাক শিয়া পূণ্যার্থীদের মাঝে নিয়ে বিস্ফোরণ ঘটান। ওই পূণ্যার্থীরা বাগদাদের ইমাম কাদিমের মাজারে যাচ্ছিলেন।
 
একই দিন আইএসের যোদ্ধারা ইরাকের উত্তরাঞ্চলীয় বাইজি টাউনেও হামলা চালায়। কয়েকমাস আগে ইরাকি বাহিনী ও শিয়া বেসামরিক যোদ্ধারা আইএসের দখল থেকে বাইজি পুনরুদ্ধার করেন। শহরটির পুনরুদ্ধারে চালানো অভিযানে আইএসের যোদ্ধাদের সঙ্গে লড়াই চলাকালে বাইজির বিশাল তেল শোধনাগারটি ধ্বংস হয়ে যায়।
 
শুক্রবার সন্ধ্যায় চালানো প্রথম আক্রমণেই আইএসের যোদ্ধারা বাইজির পশ্চিমের সিনিয়া এলাকায় চারটি নিরাপত্তা চৌকি দখল করে নেয়। তাদের গাড়িবোমা হামলায় ইরাকি নিরাপত্তা বাহিনীর ১১ জন সদস্য নিহত ও অপর ১২ জন আহত হন। এক দশক আগে বাগদাদে প্রায় প্রতিদিন বোমা হামলা হতো। সেই অবস্থার পরিবর্তন হলেও শহরটির নিরাপত্তা রক্ষায় নিয়োজিত নিরাপত্তা বাহিনী ও বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে প্রায়ই বোমা হামলা চালায় বিদ্রোহীরা। রয়টার্স।