ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:৪৫ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

হোয়াইট হাউজের সাফাই
নিহতের মধ্যে একজন আল-কায়দা নেতার শিশু কন্যাসহ দশটি শিশু ছিল বলে জানা যায়

ইয়েমেনে অভিযান নিয়ে হোয়াইট হাউজের সাফাই

ইয়েমেনে আল-কায়েদা জঙ্গি গোষ্ঠীর ওপর শনিবারের মার্কিন কমান্ডো হামলায় অন্তত ২৩জন বেসামরিক মানুষ নিহত হয়। যার মধ্যে একজন আল-কায়দা নেতার শিশু কন্যাসহ দশটি শিশু ছিল বলে জানা যায়। তবে ওই হামলার পক্ষে সাফাই গেয়ে হোয়াইট হাউজ বলছে, বেসামরিক হতাহতের ঘটনা এড়িয়ে এরকম কাজে সাফল্য পাওয়াও কঠিন।

ক্ষমতায় আসার পর এটাই ছিল ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে প্রথম কোন জঙ্গি বিরোধী অভিযান।

ইয়েমেনে আল কায়েদা জঙ্গি গোষ্ঠীর শক্ত ঘাঁটি বলে পরিচিত ইয়াকলা জেলায় গত শনিবারের মার্কিন এই কমান্ডো হামলায় ১৪জন আল-কায়েদা জঙ্গি নিহত হয়।

মার্কিন সেনাবাহিনী দাবি করে তার মধ্যে অন্তত ৩জন জঙ্গি নেতাও ছিলেন। এই অভিযানে একজন মার্কিন নেভি সেনাও মারা যান।

তবে বেশ কয়েকটি অ্যাপাচি হেলিকপ্টারে করে চালানো এই অভিযান থেকে রেহাই মেলেনি বেসামরিক অধিবাসীদেরও।

নিহত ২৩জন সাধারণ মানুষের মধ্যে অন্তত ১০টি শিশু বলে জানিয়েছে একটি মানবাধিকার সংস্থা। এই ঘটনা নিয়ে সামাজিক মাধ্যম আর গণমাধ্যমে সমালোচনাও তৈরি হয়েছে।

তবে হোয়াইট হাউজ মুখপাত্র শেন স্পাইসার সাংবাদিকদের জানান, ”এরকম অভিযানকে সফল বলা কিছুটা কঠিন যখন অনেক প্রাণ হারাতে হয়। তবে সামগ্রিক বিচারে এথেকে যথেষ্টই সফলতা রয়েছে।”

মিস্টার স্পাইসার অবশ্য তার বক্তব্যে নারী ও শিশু নিহতের বিষয় উল্লেখ করেননি।

এর আগে রিপ্রাইভ নামের একটি মানবাধিকার সংস্থা দাবি করে, ঐ অভিযানে নিহতের মধ্যে একটি সদ্যজাত শিশুও ছিল। বিবিসি