Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:২৭ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

ইনুকে ‘গ্রামছাড়া’ করার হুমকির পরে আজও আ. লীগ-জাসদ সংঘর্ষ

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুকে ‘গ্রামছাড়া’ করার হুমকি দিয়েছেন তাঁর সংসদীয় এলাকার স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা। ইনুকে বুধবার ‘অবাঞ্ছিত’ করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তাঁরা। এর পরে আজ আবারো ভেড়ামারার ফারাকপুর রেলগেট এলাকায় আওয়ামী লীগ এবং জাসদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।
৯ সেপ্টেম্বর বুধবার বিকেলে কুষ্টিয়া ভেড়ামারা উপজেলা শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এক প্রতিবাদ সভায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা এ হুঁশিয়ারি দেন।
গত সোমবার রাত সাড়ে আটটার দিকে ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামে স্থানীয় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সঙ্গে জাসদের কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। ওই ঘটনায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের স্থানীয় কার্যালয় ভাঙচুর করার অভিযোগে জাসদের ২৫ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়। অভিযোগ উঠেছে কার্যালয়ে থাকা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবিও ভাঙা হয়।
এরই প্রতিবাদে ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী লীগ এই প্রতিবাদ সভা করে। বিকেল চারটায় সভা শুরু হয়ে শেষ হয় সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়। সমাবেশে দুই উপজেলার পাঁচ সহস্রাধিক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী লীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক শরিফুজ্জামান বলেন, ‘ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হলে ইনুকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হবে।’ মিরপুর উপজেলার বহলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ‘২৪ ঘণ্টার মধ্যে আসামিদের গ্রেপ্তার করা না হলে সড়ক অবরোধ করা হবে।’

ভেড়ামার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান মিঠুর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হালিম, কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামারুল আরেফিন ও পৌর মেয়র শামিমুল ইসলামসহ স্থানীয় বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী ও যুবলীগের শীর্ষ নেতারা।

এ প্রতিবাদ সভাকে কেন্দ্র করে ভেড়ামারা উপজেলা জাসদ কার্যালয়সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ছিল। চাপা উত্তেজনাও বিরাজ করছিল।

এদিকে ভাঙচুরের ঘটনার সঙ্গে জাসদকে জড়ানোর প্রতিবাদে ভবিষ্যতে জাসদও পাল্টা কর্মসূচি ঘোষণা দেবে বলে ভেড়ামারা উপজেলা জাসদের সভাপতি এস এম আনসার আলী সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘একটি মহল জাসদের সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর ইমেজকে ক্ষতি করার মিশনে নেমেছে। এ চক্রান্ত সফল হবে না।’ তবে জেলা জাসদের এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘বিচ্ছিন্ন ঘটনাটি’ ঠিক করার জন্য উচ্চপর্যায়ে আলোচনা চলছে ।

এ দিকে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় আওয়ামী লীগ এবং জাসদের মধ্যে আবারো সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার বেলা আড়াইটার দিকে ভেড়ামারার ফারাকপুর রেলগেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এখানে একটি ডেকোরেটরে বসে ছিলেন আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এসময় তাদের উপর জাসদ কর্মীরা হামলা চালালে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়।
পরে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সংঘবদ্ধ হয়ে জাসদের কর্মীদের ধাওয়া করলে তারা পালিয়ে যায়। এ সময় একটি মটর সাইকেল ভাঙচুর করা হয়।
এ ঘটনায় উভয় গ্রুপের মধ্যে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে।