Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৮:১১ ঢাকা, মঙ্গলবার  ১৩ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ইউক্রেনের গুরুত্বপূর্ণ দেবালতসেভ শহরে প্রচন্ড যুদ্ধ

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

 

ইউক্রেনের একটি কৌশলগত গুরুত্বপূর্ণ নগরীর নিয়ন্ত্রণ নিতে সরকারি বাহিনী ও রাশিয়াপন্থী বিদ্রোহীদের মধ্যে রোববার প্রচন্ড যুদ্ধ হয়েছে।
বার্তা সংস্থা এএফপি’র খবরে বলা হয়েছে, দোনেতস্ক ও লুগানস্কে বিদ্রোহীদের ঘাঁটির মধ্যে কিয়েভ নিয়ন্ত্রিত দেবালতসেভ শহরের চারপাশে গোলাবর্ষণ করা হয়েছে। এ অঞ্চলে বিদ্রোহী যোদ্ধারা ইউক্রেনের সৈন্যদের আটকে রাখার চেষ্টা করছে।
এএফপি’র এক ক্রুকে বহনকারী একটি গাড়িবহরও হামলার কবলে পড়ে। এতে গাড়িবহরে থাকা একটি বাসের জানালা উড়ে যায় এবং দুই জন সামান্য আহত হয়।
সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, সরকারের নিয়ন্ত্রণাধীন ওই শহরের সঙ্গে একটি মাত্র নিরাপদ সংযাগ সড়ক দিয়ে বাসিন্দাদের সরিয়ে আনা হচ্ছে। তবে যারা এখনও ওই এলাকায় রয়ে গেছে তাদের জন্য পরিস্থিতি ক্রমেই কঠিন হয়ে পড়ছে।
স্থানীয় পুলিশ কমান্ডার ইয়েভগেন লুখাািনভ এএফপি’কে বলেন, অবিরাম গোলাবর্ষণের কারণে বেসামরিক লোকজন এলাকা থেকে পালিয়ে যাচ্ছেন। সেখানে পানি নেই, বিদ্যুৎ নেই। এর পাশাপাশি সেখানে ঘর গরম রাখার ব্যবস্থা কাজ করছেনা। ।
ইউক্রেনের সামরিক মুখপাত্র ভলোদিমির পলিওভি বলেন, দেবালতসেভ শহরের চারপাশে ‘অবিরাম যুদ্ধ’ চলছে। তবে সরকারি বাহিনী শহরমুখী একমাত্র সড়কের নিয়ন্ত্রণ ছেড়ে না আসার অঙ্গীকার করেছে।
গত এপ্রিলে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের দোনেতস্ক ও লুহানস্কে রাশিয়াপন্থী বিদ্রোহ শুরু হয়। এর কয়েক সপ্তাহ আগে এক গণভোটের মাধ্যমে ক্রিমিয়া উপদ্বীপ ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর রুশ ফেডারেশনে যুক্ত হয়।
ইউক্রেন সরকার ও পূর্বাঞ্চলের বিদ্রোহীদের মধ্যে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ৫ হাজার ১শ’ লোক নিহত হয়েছে।
ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী রোববার জানায়, গত ২৪ ঘন্টায় ১৩ সৈন্য নিহত ও ২০ জন আহত হয়েছে। এনিয়ে গত দুই দিনে সরকারি সৈন্য নিহতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৮।
সরকারি কর্মকর্তা ও বিচ্ছিন্নতাবাদী বিদ্রোহীরা জানান, যুদ্ধবিধ্বস্ত পূর্বাঞ্চলে যুদ্ধে কমপক্ষে ১৭ বেসামরিক নিহত হয়েছে।

FOLLOW US: