ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ২:৫০ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

দুর্নীতি দমন কমিশন
দুর্নীতি দমন কমিশন

ইউএনও-সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের পাথরকোয়ারিতে বোমা মেশিন চালাতে ৩০ লাখ টাকা ‘ঘুষ’ নেয়ার অভিযোগে আলোচিত প্রাক্তন ইউএনও আসিফ ইকরামসহ ৭ কর্মকর্তা/কর্মচারীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

১৫০ শতক জায়গা বন্দোবস্তে অনিয়মের অভিযোগে দুদকের সিলেট উপসহকারী পরিচালক ওয়াহিদ মঞ্জুর সোহাগ বুধবার রাতে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার অপর আসামিরা হলেন- সিলেট সদরের সহকারী কমিশনার রাশেদ ইকবাল চৌধুরী, সদর ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার মোশারফ হোসেন, জালাল উদ্দিন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার মো. রফিকুল ইসলাম, ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা চৌধুরী, ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা মো. খলিলুর রহমান।

কোম্পানীগঞ্জ থানা মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। থানা জানাচ্ছে, মামলা নথিভুক্ত করে (নম্বর ২৩) শিগগিরই আসামিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা।

মামলার এজহারে বলা হয়, কোম্পানীগঞ্জের পারকুল মৌজার ১৮০৫ দাগের ১.৫০ একর ভূমি মাঠ জরিপে রেকর্ড হয় এবং উক্ত ভূমি অবৈধভাবে আত্মসাৎ করা হয়। উল্লিখিত ভূমি অবৈধভাবে আত্মসাতের সহযোগিতা করে ইউএনও আসিফ ইকরামের নেতৃত্বে অভিযুক্তগণ দন্ডবিধির ৪০৬/৪০৯/৪২০/১০৯ ধারা এবং ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অপরাধ করেছেন।

আসিফ ইকরাম প্রত্যাহারের পরে বর্তমানে সিলেট বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে কর্মরত আছেন।  তিনি সর্বশেষ সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলায় কর্মরত ছিলেন। সেখানে সাংবাদিক লাঞ্ছনার অভিযোগে গত ২৮ সেপ্টেম্বর তাকে প্রত্যাহার করা হয়।