ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৫৯ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

আ. লীগ নিষিদ্ধ করা উচিত, ‘জয়ের মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় জামায়াত

সজীব ওয়াজেদ জয় এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে “জামায়াতে ইসলামী একটি সন্ত্রাসী সংগঠন। জামায়াত ও ছাত্রশিবিরকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে নিষিদ্ধ করা উচিত” মর্মে করা মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও সাবেক এমপি জনাব হামিদুর রহমান আযাদ তাদের দলীয় ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘সন্ত্রাসের জন্য যদি কোন রাজনৈতিক দলকে নিষিদ্ধ করতে হয় তাহলে আওয়ামী লীগ ও তার সকল অঙ্গ সংগঠনগুলোকেই নিষিদ্ধ করা উচিত।’ 
 
বিবৃতিতে বলা হয় “সজীব ওয়াজেদ জয় জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবির সম্পর্কে যে মন্তব্য করেছেন তা সম্পূর্ণ অজ্ঞতাপ্রসূত, অসত্য ও বেমানান। বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী এবং ইসলামী ছাত্রশিবির নিয়মতান্ত্রিক ও গণতান্ত্রিক ধারায় রাজনীতি এবং সাংগঠনিক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে থাকে। জামায়াতে ইসলামী ও ছাত্রশিবির জন্মলগ্ন থেকেই সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে আসছে। আজ পর্যন্ত জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরকে কেউই সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে প্রমাণ করতে পারেনি। সজীব ওয়াজেদ জয় এবং তার দলের মন্ত্রীদের কথা দেশী-বিদেশী কেউ বিশ্বাস করে না। সরকারের নানান ধরনের মিথ্যা প্রচারণা সত্ত্বেও দেশী-বিদেশী কেউই জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে মনে করে না। সজীব ওয়াজেদ জয়ের মন্তব্যের কোন ভিত্তি নেই। তিনি জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরকে নিষিদ্ধ করা সম্পর্কে যে মন্তব্য করেছেন তা সম্পূর্ণ অন্যায়, অযৌক্তিক ও অনৈতিক। কাজেই জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরকে নিষিদ্ধ করার প্রশ্নই আসে না।
 
বিবৃতিতে বলা হয় জামায়াতে ইসলামীর কোন সদস্যই আজ পর্যন্ত আইএস-এ যোগদান করেনি। আইএস-এর কোন লোকের জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের সদস্য থাকার প্রশ্নই আসে না।বাংলাদেশের মানুষ জামায়াতকে নয়, উল্টো তার দলকেই সন্ত্রাসী সংগঠন মনে করে। আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ হত্যা, সন্ত্রাস, অপহরণ, গুম, টেন্ডারবাজী, চাঁদাবাজী, নারী অপহরণ, নারী ধর্ষণসহ নানা ধরনের সন্ত্রাসী তান্ডব চালাচ্ছে। হেন কোন অপরাধ নেই যা তারা করে না। সন্ত্রাসের জন্য যদি কোন রাজনৈতিক দলকে নিষিদ্ধ করতে হয় তাহলে আওয়ামী লীগ ও তার সকল অঙ্গ সংগঠনগুলোকেই নিষিদ্ধ করা উচিত।

http://jamaat-e-islami.org/newsdetails.php?nid=NDI4OQ==