একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দুই তৃতীয়াংশ আসন পেয়ে বিজয় লাভ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘আগামী ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দুই তৃতীয়াংশ আসন পেয়ে আওয়ামী লীগ তথা মহাজোট বিজয়ী হবে বলে আশা করছি।’

ওবায়দুল কাদের আজ বৃহষ্পতিবার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনী পথ সভায় এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিজয়ের ৪৭ বছর পর আরেকটি বিজয় সূচিত হতে যাচ্ছে। সারাদেশে যে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে এতে বিজয়ের সুবাতাস পাওয়া যাচ্ছে। কর্মীরাই হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রাণ। এরাই প্রতিটি কেন্দ্রে ভোট গণনা পর্যন্ত পাহারা দিবে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ গত ৬৯ বছরে নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতায় আসে নাই। আমরা জনগণ নিয়েই নির্বাচন করে ক্ষমতায় এসেছি। আওয়ামী লীগ বন্দুকের নল বা পিছনের পথ দিয়ে কখনো ক্ষমতায় যায়নি। আমাদের ক্ষমতার উৎস জনগণ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, উন্নয়নের জোয়ার ও নৌকার জোয়ারে একাকার হয়ে গেছে সারাদেশ। জনগণ শেখ হাসিনার সততা ও পরিশ্রমী নেতৃত্বের সাফল্যে ও উন্নয়নে খুশি ।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা বিশ্বের সেরা প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে একজন। বিশ্বের সেরা তিনজন সৎ প্রধানমন্ত্রীর একজন এবং বিশ্বের চারজন পরিশ্রমী প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে একজন। আমেরিকার সাবেক প্রেসডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, উন্নয়নের মডেল বা উন্নয়ন যদি দেখতে চাও তাহলে বাংলাদেশে গিয়ে শেখ হাসিনাকে দেখে আসো। আমরা আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে গর্বিত ।

আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রতিটি ইউনিয়নে ডিজিটাল সেন্টার, বয়স্ক- বিধবা- মাতৃত্ব কালীন ভাতা শেখ হাসিনার অবদান। গ্রাম-গঞ্জে আধুনিকতার জন্ম দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। নারী জাতিকে তিনি যে সম্মানের আসনে বসিয়েছেন তা বিরল।

দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আগামী তিনদিন মাথা ঠান্ডা রেখে সতর্কতার সাথে কাজ করতে হবে। এ সরকার যতো উন্নয়ন করেছে তার সুফল সব দলের লোকে ভোগ করছে। কোন বিশেষ দল বা ব্যক্তির জন্য উন্নয়ন হয়নি।

এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খিজির হায়াত, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, বসুর হাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা সহ দলীয় নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।