ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:১৩ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

জনসভায় লোক সমাগম ঠেকাতেই আজ হরতাল!

আজ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের জনসভা, অপরদিকে ঢাকা জেলার পাঁচটি উপজেলা দোহার, নবাবগঞ্জ, কেরানীগঞ্জ, সাভার ও ধামরাইয়ে হরতাল ডাকা হয়েছে। আশপাশের জেলা গাজীপুর, মানিকগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, টাঙ্গাইল ও কুমিল্লায়ও আজ সকাল-সন্ধ্যা হরতাল আহ্বান করেছে জেলা বিএনপি এবং ঢাকা জেলাসহ  ঢাকার আশেপাশের ১৪টি জেলায় পৃথক ভাবে হরতাল ডেকেছে ছাত্রদল, মূলতঃ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের জনসভায় লোক সমাগম ঠেকাতেই অবরোধ কর্মসূচি চলমান থাকাকালীন আজ সোমবার হরতালও ডেকেছে ।

সোমবার বেলা ২টায় রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভার প্রস্তুতি নিয়েছে আওয়ামী লীগ। সমাবেশ সফল করতে ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির কার্যালয়ে একাধিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনেও এ সংক্রান্ত একটি সভা হয়েছে। ওই সভার সিদ্ধান্তের আলোকে ১০ জানুয়ারির পরিবর্তে সমাবেশকে ১২ জানুয়ারিতে নেয়া হয়েছে।

গত ১০ জানুয়ারি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির কার্যালয়ে দলের ঢাকা অঞ্চলের নেতা ও সংসদ সদস্যদের নিয়ে একটি যৌথসভা করেছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

সর্বশেষ রোববার বেলা ৩টায় দলটির বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়স্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে একটি বর্ধিত সভা হয়েছে। ওই সভায় সোমবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে লোক সমাগমের জন্য নেতৃবৃন্দকে নিদের্শ দেয়া হয়েছে। দলটির দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ ১২ জানুয়ারি সমাবেশ হবে উল্লেখ করে গণমাধ্যমে একাধিক বার্তায় জানিয়েছেন, সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও জাতীয় সংসদের উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী সমাবেশে সভাপতিত্ব করার কথা রয়েছে। যদিও সমাবেশের অনুমতি রাত পর্যন্ত মিলেনি।

অপরদিকে দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে অবরুদ্ধ করে রাখা, নেতাকর্মীদের হত্যা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে ঢাকা জেলার পাঁচটি উপজেলা দোহার, নবাবগঞ্জ, কেরানীগঞ্জ, সাভার ও ধামরাইয়ে হরতাল ডাকা হয়েছে। আশপাশের জেলা গাজীপুর, মানিকগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, টাঙ্গাইল ও কুমিল্লায়ও আজ সকাল-সন্ধ্যা হরতাল আহ্বান করেছে জেলা বিএনপি।

আকস্মিক ভাবে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল রোববার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে অবরুদ্ধ করে রাখার প্রতিবাদে ও দলের শীর্ষ নেতাদের মুক্তির দাবিতে সোমবার ঢাকা জেলাসহ ১৪টি জেলায় পৃথকভাবে হরতাল পালন করবে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। তবে ঢাকা মহানগর হরতালের আওতামুক্ত।

ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি রাজিব আহসান ও সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান সংশ্লিষ্ট জেলা নেতৃবৃন্দকে সোমবার হরতাল সফল করতে দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশ দেন। ঢাকা জেলা ছাড়া আশে-পাশের জেলাগুলো হল : নরসিংদী জেলা, নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর, গাজীপুর জেলা, টাঙ্গাইল জেলা, মুন্সীগঞ্জ জেলা, মানিকগঞ্জ জেলা, কুমিল্লা উত্তর ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলা, কিশোরগঞ্জ জেলা, ময়মনসিংহ জেলা, শেরপুর জেলা, জামালপুর জেলা, নেত্রকোনা জেলা।

পর্যবেক্ষক মহল মনে করছেন রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের জনসভায় লোক সমাগম ঠেকাতেই আজ বিএনপি এবং পৃথক ভাবে ছাত্রদলও হরতাল ডেকেছে। কারনঃ হরতাল থাকলে স্বাভাবিক চলাফেরা বিঘ্নিত হবে তাই ওই  জেলাগুলো থেকে ঢাকায় লোক সমাগমে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির জন্যই এ হরতাল আহবান।  যদিও ছাত্রদল ও বিএনপি তাদের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে অবরুদ্ধ করে রাখার প্রতিবাদে ও দলের শীর্ষ নেতাদের মুক্তির দাবিতে সোমবার হরতাল পালন করবে বলছে। তবে ঢাকা মহানগর হরতালের আওতামুক্ত রাখলেও অবরোধের আওতাভুক্ত।