শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:২০ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৩ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

আবুল মাল আব্দুল মুহিত
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, ফাইল ফটো

“আয়কর আইন আরো সহজ করা দরকার”

সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ২০১৫-১৬ কর বছরের আয়কর রিটার্ন দাখিল বিষয়ক প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও তথ্য প্রদানের লক্ষে সচিবলায়ে ‘কর তথ্য ও সেবা কেন্দ্র’ চালু হয়েছে।
রোববার অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত এই সেবা কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন।
এ সময় তিনি বলেন,আয়কর আইনে এখনও জটিলতা রয়ে গেছে। এ কারনে রিটার্ন দাখিল ও কর প্রদানের ক্ষেত্রে করদাতারা সাধারনত ভয় পান। এই ভয়ের পরিবেশ দূর করতে তিনি আয়কর আইন আরো সহজীকরণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
কর তথ্য ও সেবা কেন্দ্রের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বক্তব্য রাখেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, নাগরিক অধিকার প্রতিষ্ঠায় কর প্রদানের প্রয়োজন। কিন্তু দুঃখের বিষয়; ১৬ কোটি মানুষের এই দেশে করদাতার সংখ্যা মাত্র ১৬ থেকে ১৭ লাখ। এটা এক কোটি ৬০ লাখে উন্নীত করার প্রয়োজন বলে তিনি উল্লেখ করেন।
তিনি আরো বলেন, এনবিআর কেবল কর আদায়কারী প্রতিষ্ঠান নয়, এর প্রধান লক্ষ্য হলো-কর তথ্য ও সেবা প্রদানের মাধ্যমে পর্যাপ্ত রাজস্ব আহরণ ও অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী দেশ গঠনে সরকারকে সহযোগিতা করা। সচিবালয়ে স্থাপতি কর তথ্য ও সেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে সরকারী কর্মকর্তাদের কর সেবা প্রদানের পাশাপাশি অন্যান্য সেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে সর্বসাধারনকে কর সেবা প্রদানে এনবিআর কর্মকর্তাদের প্রতি তিনি আহবান জানান।
অনুষ্ঠানে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, আমরা টিমওয়ার্কের মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব আয় বাড়াতে কাজ করছি। আয়কর মেলা এবং কর তথ্য ও সেবা কেন্দ্র স্থাপন দেশবাসীকে কর প্রদানে উৎসাহ বাড়াতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা বলেন,কর সংস্কৃতির বিকাশে সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গী নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, নতুন পে স্কেল চালু হলে অনেক সরকারী কর্মকর্তা করের আওতায় চলে আসবে,যা আমাদের জন্য গর্বের বিষয়।
অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বলেন, নতুন রাজস্ব বোর্ড ধারনা নিয়ে আমরা সম্মিলিতভাবে রাজস্ব আহরণে কাজ করছি। দেশজুড়ে এখন ইন্টারনেট সপ্তাহ চলছে। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা দেশের যে কোন প্রান্ত থেকে সচিবালয়ে স্থাপিত তথ্য ও সেবা কেন্দ্র থেকে কর বিষয়ক তথ্য ও সেবা নিতে পারবেন বলে তিনি জানান।
সচিবালয়ে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে কর পরামর্শ কেন্দ্রটি স্থাপন করা হয়েছে। আগামী ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত এটি উন্মুক্ত থাকবে। এ কেন্দ্র থেকে কর কর্মকর্তারা আয়কর রিটার্ন দাখিল বিষয়ক প্রয়োজনীয় তথ্য ও পরামর্শ প্রদান করবেন। এখান থেকে প্রয়োজনীয় ফরম, পরিপত্র ও রিটার্ন দাখিলের নির্দেশকাও দেওয়া হবে।