ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:১১ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

সজীব ওয়াজেদ জয়
প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়,ফাইল ফটো

‘আ’লীগ ক্ষমতায় থাকার কারণেই ডিজিটাল বাংলাদেশ’

প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় না থাকলে ডিজিটাল বাংলাদেশ সম্ভব হত না। তিনি বলেন, বাংলাদেশ নিজস্ব পরিকল্পনা, অর্থ এবং কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির (আইসিটি) ক্ষেত্রে বিশ্বে একটি রোল মডেল হয়েছে।

তিনি বলেন, আজ গর্ব করেই বলতে পারি, আমরা কঠোর পরিশ্রম, পরিকল্পনা ও অর্থ দিয়ে প্রাথমিক অবস্থা থেকে বাস্তবতায় ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত করেছি। কিছু বিদেশী কোম্পানি এ ব্যাপারে কিছু ভূমিকা রাখলেও ডিজিটালাইজেশনের বেশির ভাগ কাজ আমাদের নিজস্ব কোম্পানি করেছে।

জয় বলেন, আমরা যখন প্রাথমিক পযার্য়ে ডিজিটালাইজেশন করার পরিকল্পনা করি, তখন অনেক বিদেশী কোম্পানি আমাদের দেশ ডিজিটালাইজেশন করে দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল। তাদের বিশেষজ্ঞ ও জ্ঞান ছিল। আমি তাদেরকে বলেছিলাম. কোন প্রয়োজন নেই। আমাদের মেধা ও দক্ষতা আছে। আমরা নিজেরাই করতে পারব।

প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা জয় মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে আইসিটি বিভাগ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তাঁকে দেয়া এক সংবর্ধনার জবাবে বক্তৃতাকালে এ কথা বলেন।

বাংলাদেশকে ডিজিটাল জগতে নিয়ে যাওয়ায় বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসাবে সম্প্রতি তিনি আইসিটি ফর ডেভলোপমেন্ট আ্যওয়ার্ড লাভ করায় তাকে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়।

জয় বলেন, আমি মনে করি বাংলাদেশের মতো বিশ্বে আর কোন দেশ নেই, এতো অল্প সময়ের মধ্যে একটি দরিদ্র দেশকে ডিজিটালাইজ করেছ্।ে বাংলাদেশে এটি সম্ভব হয়েছে। বাংলাদেশ সমগ্র বিশ্বের সামনে আইসিটির অগ্রগতিতে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে এবং এ সেক্টরে বিশেষজ্ঞ বেরিয়ে আসছে।

জয় বলেন, এখন অন্যান্য দরিদ্র দেশকে ডিজিটালাইজ করতে আমাদের কাছে বিশেষজ্ঞ চাচ্ছে। অনেক দেশ আমাদের কাছে এসেছে, তাদের দেশটিকে ডিজিটালাইজ করে দিতে।

তিনি বলেন, আইসিটি আ্যওয়ার্ড লাভ আওয়ামীলীগ সরকারের একটি অর্জণ। সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারিরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

জয় বলেন, আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় না থাকলে ডিজিটাল বাংলাদেশ সম্ভব হত না। এ জন্য অবশ্য তিনি আইসিটি সেক্টরের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারির প্রতি এবং আইসিটি ব্যবহার করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তরুন প্রজন্মের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, পররাষ্ট্র বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট তারানা হালিম উপস্থিত ছিলেন।