Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:২৭ ঢাকা, মঙ্গলবার  ১৩ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

আ’লীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষে আহত ৩০, উপজেলা চেয়ারম্যান-এমপির গাড়ি ভাঙচুর

রাজশাহীর দুর্গাপুরে জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাছাইকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে।

শনিবার বিকেলে স্থানীয় এমপি আব্দুল ওয়াদুদ দারার উপস্থিতিতেই এ ঘটনা ঘটে।

mp5

এ সময় এমপি এবং উপজেলা চেয়ারম্যানের গাড়িও ভাঙচুর করে। পরে পুলিশ ফাঁকা গুলি ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।  সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে দুর্গাপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মকছেদ আলী ও সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন, দাওকান্দি কলেজ অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হকসহ কয়েকজনকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদের মধ্যে কয়েকজন দুর্গাপুর থানা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এ ঘটনার পরে এলাকায় এমপি আব্দুল ওয়াদুদ গ্রুপ ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মজিদ গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলাকায় অতিরিরক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

mp4

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, শনিবার বিকেলে জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের জন্য প্রার্থী বাছাই করতে স্থানীয় রসুলপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়। ওই সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী-৫ (পুঠিয়া-দুর্গাপুর) আসনের এমপি আব্দুল ওয়াদুদ দারা। সভা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পরে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদের নেতৃত্বে দেড়-দুই হাজার নেতাকর্মী রসুলপুর মাঠে গিয়ে জড়ো হন। এর পর মজিদ গ্রুপের সঙ্গে এমপি দারা গ্রুপের সংঘর্ষ শুরু হয়। এসময় এমপি দারা ও উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের গাড়ীও ভাঙচুর করে মজিদ গ্রুপের লোকজন। সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে নেতাকর্মীদের পাহারায় এমপি ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

দুর্গাপুর থানা বলছে  ‘নির্বাচন নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দু’গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। এ ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়েছে।’ তবে পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত  আছে।

FOLLOW US: