আমি নিজে থেকেই ফিটনেসবিহীন গাড়ির বিরুদ্ধে অভিযান চালাবো:কাদের

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ফিটনেসবিহীন যানবাহনের বিরুদ্ধে এবার সারাদেশে একযোগে আরো কঠোরভাবে অভিযান পরিচালনা করা হবে।
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) অভিযান তো আছেই। এবার আমি নিজে থেকেই সারাদেশে ফিটনেসবিহীন গাড়ির বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার উদ্যোগ নেব। সড়কে আর কোন আনফিট যানবাহন কিংবা আনফিট ড্রাইভার, কোনটিই থাকতে পারবে না।’
মন্ত্রী আজ দুপুরে স্থানীয় একটি হোটেলে বাংলাদেশে তৈরি প্রথম শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত বাস, টাটা এলপি-৯০৯ এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন,’ আনফিট যানবযাহন উচ্ছেদ করতে এবার আমরা আট ঘাট বেঁধে নেমেছি। এ অভিযানের দরুন রাজধানীতে কিছুটা যানবাহনের সংকট দেখা দিয়েছে। ’
এজন্য তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন,’ বড় কিছু অর্জন করতে গেলে ছোটখাটো ত্যাগ স্বীকারের মানসিকতা থাকতে হবে।’ এ জন্য তিনি সবাইকে ধৈর্য্য ধরার আহ্বান জানান।
সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে ইতোমধ্যে রাজধানীতে ২শ’ বিআরটিসি বাস নামানো হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ’গণপরিবহনের ঘটতি মোকাবেলায় বিভিন্ন রুটে আরো বিআরটিসি বাস চালু করা হবে।’
নিটল মটরসের চেয়ারম্যান আব্দুল মাতলুব আহমদেও সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন বাংলাদেশের রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির সচিব মো. শওকত আলী এবং টাটা মটরসের কান্ট্রি হেড মুকুল মানিশ । ওবায়দুল কাদের নাটোরের ভয়াবহ বাস দুর্ঘটনার উল্লেখ করে বলেন, ফিটনেস বিহীন যান এবং আনফিট ড্রাইভার, এদুটি কারণেই এতগুলো মূল্যবান প্রাণ ঝড়ে গেছে। এখানে রাস্তার কোন নির্মাণ ক্রুটি ছিল না।
তিনি ফিটনেসবিহীন গাড়িগুলো রাস্তা থেকে সরিয়ে নেয়ার পর সৃষ্ট জনদুর্ভোগ লাঘবে নিটোল টাটাসহ আরো বড় বড় কোম্পানীগুলোকে ভালমানের পাবলিক ট্রান্সপোর্ট আমদানিতে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
নিটল মটরসের চেয়ারম্যান আব্দুল মাতলুব আহমদ বলেন, ‘প্রথমাবস্থায় ১শ’ এসি মিনিবাস নামানো হয়েছে। এই গাড়ী বাংলাদেশে তৈরি প্রথম শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত অত্যাধুনিক ও আরামদায়ক বাস। যা বাংলাদেশের উত্তপ্ত আবহাওয়ায় মানুষের আরামদায়ক চলাচল নিশ্চিত করবে। এই এসি বাসগুলো রাজধানী এবং শহরতলী এলাকায় চলাচল করবে। ’
নিটোল মটরর্সের কর্মকর্তারা জানান, এল পি ৯০৯ এই অত্যাধুনিক জ্বালানি সাশ্রয়ী এই এসি বাসে রয়েছে ৩৭৮৩ সিসি এবং ৯০ হর্স পাওয়ার ইঞ্জিন, ৩৬ জনের আরামদায়ক প্রশস্ত বসার ব্যবস্থা। এসির জন্য রয়েছে বিশেষভাবে তৈরী আলাদা ইঞ্জিন, জরুরী অবস্থায় বের হওয়ার জন্য জানালা এবং গ্লাস খোলার ব্যবস্থাও রয়েছে।

এই প্রতিবেদন Like & Share করুন।