ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:৫৫ ঢাকা, শুক্রবার  ১৯শে জানুয়ারি ২০১৮ ইং

আমান ফিডের লেনদেন কৃত্রিম, তদন্ত দাবি

পুঁজিবাজারে সদ্য তালিকাভুক্ত আমান ফিড লিমিটেডের শেয়ারের দর বৃদ্ধি তদন্তের জন্য বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনকে (বিএসইসি) চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ।

বুধবার বিনিয়োগকারীদের পক্ষে সংগঠনটির সভাপতি একেএম মিজানুর রশিদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক কাজী আবদুর রাজ্জাক স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত চিঠি বিএসইসির চেয়ারম্যান বরাবর পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, ২০১০ সালের মহাধ্বসের ধারা এখনো অব্যাহত রয়েছে। বাজার মাঝে মাঝে স্বাভাবিক আচরণ করলেও বেশীরভাগ সময়ে থাকে নিম্নমুখী। আর এ পতনের বাজারে অযৌক্তিক হার প্রিমিয়াম বিএসইসির নজর দারির অভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা। কেননা প্রথম দিনেই আমান ফিডের শেয়ার দর ১০৫ টাকা পর্যন্ত লেনদেন হওয়ার কোনো যৌক্তিক কারণ নেই। কোম্পানির পেইড আপ কেপিট্যাল মাত্র ৮০ কোটি টাকা। কিন্তু প্রথম দিনের লেনদেন অনুযায়ী এর মার্কেট ভ্যালু দাঁড়ায় ৮০০ কোটি টাকা। প্রথম দিনে শেয়ার কারসাজি করে মূল্য বাড়িয়েছে কোম্পানিটি।

কারা বেশী পরিমাণে শেয়ার ক্রয় করেছে তাদের খুঁজে বের করা জরুরী। আর এর মধ্যে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা কতটা পরিমাণে শেয়ার ক্রয় করেছে এটা বের করাও অতীব জরুরী।

চিঠিতে আরও বলা হয়, অতীতে অনেক কোম্পানি বিশেষ করে হামিদ ফেব্রিক্স, খান ব্রাদ্রার্স, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, পেনিসুলা, তসরিফা, ফারইস্ট নিটিংসহ আরও অনেক কোম্পানি লেনদেন শুরুর প্রথমদিনে উচ্চমূল্যে শেয়ার ক্রয়-বিক্রয় করেছে। কিন্তু এসব কোম্পানির শেয়ার কিনে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন বিনিয়োগকারীরা।

এদিকে আমান ফিডের কারণে পুরোবাজারের শৃঙ্খলা নষ্ট হয়েছে। কারসাজিকরে কৃত্রিমভাবে মূল্য বৃদ্ধি করে পুরোবাজারকে ক্ষতিগ্রস্ত করা হচ্ছে। তাই আমান ফিডের এ অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধির সঠিক ত্দন্ত চাই আমরা। আর সঠিক তদন্ত না করা হলে সংগঠনটি আইনের আশ্রয় গ্রহণ করবে বলে চিঠিতে জানানো হয়।