হাসানুল হক ইনু
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

‘আমরা খুনী ও দুর্নীতিবাজদের সঙ্গে বসবো না’ – ইনু

চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে বলতে গিয়ে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, জঙ্গি, যুদ্ধাপরাধী ও দুর্নীতিপরায়ণদের রক্ষায় দরকষাকষির ছুতা হতে পারে। কিন্তু এ চালে কাজ হবে না। আমরা খুনী ও দুর্নীতিবাজদের সঙ্গে বসবো না।

মন্ত্রী আজ সেগুন বাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে ‘মিট দ্য রিপোর্টার্স’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।

চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি বলেন, বিএনপি’র প্রস্তাবিত নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে আমরা আলোচনা করতে পারি না। কারণ এ ব্যাপারে তারা বিস্তারিত কিছু বলেননি। তবে আমার মনে হয়, জঙ্গি, যুদ্ধাপরাধী ও দুর্নীতিপরায়ণদের রক্ষা করতে এটা তাদের দরকষাকষির ছুতা হতে পারে। কিন্তু এ চালে কাজ হবে না। কারণ আমরা খুনী ও দুর্নীতিবাজদের সঙ্গে বসবো না। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে বিচারাধীন মামলা ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আমাদের প্রচারণা চলবে। একইভাবে নির্বাচনী প্রক্রিয়াও অব্যাহত থাকবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এটা বাংলাদেশ জাতীয়াবাদী দলকে (বিএনপি) সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে তারা খালেদাকে নিয়ে বা ছাড়া নির্বাচনে যাবে। এটা আমাদের কোন ব্যাপারে নয়। নির্ধারিত সময়েই নির্বাচন হবে। কে নির্বাচনে এলো বা না এলো এটা কোন বিষয় নয়।

মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার সরকার দৈনন্দিন কাজের জন্য নয়, বরং শান্তি, অগ্রগতি, সমৃদ্ধি ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার ভিশন নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।

এতে সভাপতিত্ব করেন ডিআরইউ’র সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা ও অনুষ্ঠান সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, নবম ওয়েজবোর্ড গঠন এবং বিশেষ করে সম্প্রচার নীতিমালা ও সাইবার আইন প্রণয়নসহ সংবাদ মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট আইন আধুনিকায়নে সরকার কাজ করছে।

সম্প্রচার ও সাইবার সংশ্লিষ্ট নতুন আইনটি নিয়ন্ত্রণমূলক হবে না সাংবাদিকদের এ আশ্বাস দিয়ে মন্ত্রী বলেন, আমরা একটি কাঁচের ঘরে বাস করছি। ঘরটিকে পোকা-মাকড় থেকে রক্ষা করতে একটি মশারি প্রয়োজন। আমরা কেবল এই জাল তৈরিই করছি।

ইনু বলেন, অবাধ সম্প্রচার ও সাইবার নীতিমালার কারণে অনেক ক্ষতিকর প্রভাবের উদ্ভব হয়েছে। সম্প্রচারিত কিছু কিছু বিষয় বিশেষ করে শিশু, নারী ও রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তার জন্য নাশকতামূলক হিসেবেই পরিদৃষ্ট। এ জন্য আমরা যথাযথ অধিনৈমায়িক কাঠামো তৈরির লক্ষ্যে কাজ করছি- যা জাতিকে রক্ষা এবং এই শিল্পের সুগম বিকাশ নিশ্চিত করবে।

মন্ত্রী বলেন, নবম ওয়েজবোর্ডের ‘গ্রাউন্ড ওয়ার্ক’ সম্পন্ন হয়েছে। এখন কেবল স্টেকহোল্ডারদের প্রতিনিধি মনোনয়নের অপেক্ষায় রয়েছে। এ বোর্ডে ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিত্ব থাকবে।

 

 

শীর্ষ মিডিয়া-বিএ/বিকে-এল১৯-২প-১

সর্বশেষ সংশোধিত: