Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১১:৩৬ ঢাকা, সোমবার  ১৯শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ অপচয়
আফগানিস্তানের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী ২০০৭ সালে এই ডিজাইনটা পছন্দ করেন

আফগান সেনা পোশাকের পেছনে যুক্তরাষ্ট্রের ‘অর্থ অপচয়’

বিশ্বব্যাপী যুদ্ধের বিষয় পর্যালোচনাকারী যুক্তরাষ্ট্রের ইন্সপেক্টর জেনারেল জন সোপকোর দেয়া তথ্য অনুযায়ী, মার্কিন করদাতাদের দেওয়া অর্থ থেকে আফগানিস্তানের সেনাবাহিনী আফগান ন্যাশনাল আর্মির পোশাকে অপ্রয়োজনীয়ভাবে দুই কোটি ৮০ লাখ ডলার ব্যয় করা হয়েছে।

এক প্রতিবেদনে আফগান সেনা পোশাকে পেন্টাগনের অর্থ অপচয়ের কঠোর সমালোচনা করে জন সোপকো বলেন, “আফগানিস্তানের মোট বনভূমি এর আয়তনের মাত্র ২ দশমিক ১ শতাংশ, সেখানে ‘জংলি’ ছাপার পোশাক বানানো অযৌক্তিক”।

“আফগান পরিবেশের সঙ্গে এই পোশাক কতটা মানানসই তা চিন্তা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি”।

তিনি আরও বলেন, আফগানিস্তানের একজন সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী ২০০৭ সালে পোশাকের এমন নমুনা পছন্দ করেছিলেন।

সতের পৃষ্ঠার ওই প্রতিবেদনে মি: সোপকো লিখেছেন সাবেক আফগান প্রতিরক্ষামন্ত্রী আবদুল রহিম ওয়ার্দাক মার্কিন সামরিক বাহিনীর পোশাকের ধরনই পছন্দ করেছেন।

আফগান সেনাদের জন্য অনলাইনে পোশাকের নমুনা যাচাই-বাছাইয়ের কাজে মন্ত্রী ওয়াদার্কের সঙ্গে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা জানান যে তারা ওই সময় লিখেছিলেন, তিনি ‘যা দেখেছেন, তা-ই পছন্দ করেছেন’ এবং কেনার অনুমতি দিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম ইউএস টুডেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মি: সোপকো বলেছেন, “আমার উদ্বেগের বিষয়টি হলো, প্রতিরক্ষামন্ত্রী যদি বেগুনি কিংবা গোলাপি রং পছন্দ করতেন, তাহলে কী হতো? তাহলে কি আমরা কোনো প্রশ্ন না করেই সেনাদের জন্য গোলাপি পোশাক কিনতাম? এর কোনো মানে আছে?”

তিনি আরো বলেছেন, “আমরা ফ্যাশনের নামে করদাতাদের দুই কোটি ৮০ লাখ ডলার নষ্ট করেছি, কারণ ওই প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনে করেছেন এই নকশাটি চমৎকার”

দীর্ঘস্থায়ী যুদ্ধের কারণে বছরের পর বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ অপচয়ের জন্য পেন্টাগনের সমালোচনা করেছেন জন সোপকো।

এদিকে পেন্টাগন আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা বাড়ানোর চিন্তা করছে।

চলতি সপ্তাহের মধ্যেই এ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। -বিবিসি