Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:১৯ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

আন্দোলন শুধু মিডিয়ায়

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, বিএনপির আন্দোলন মিডিয়া ছাড়া কোথাও নেই।
তিনি বলেন, বিএনপি ২০১৩ সালের মত আন্দোলনের নামে দেশে নৈরাজ্য তৈরির চেষ্টা করলে সরকার তাদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড প্রতিহত করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।
মাহবুব উল আলম হানিফ আজ সকালে জেলা শহরের কালেক্টরেট চত্বরে কুষ্টিয়া মুক্ত দিবস উপলক্ষে শহীদদের স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধাঞ্জলী প্রদান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
হানিফ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পরে জিয়াউর রহমান ও বেগম খালেদা জিয়া যুদ্ধাপরাধীদের দল জামায়াতে ইসলামীকে রাজনৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করে।
তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান যুদ্ধাপরাধীদের জেল থেকে মুক্ত করে দিয়েছিল, তাদের বিচার বন্ধ করে দিয়েছিল, গোলাম আযমকে ফিরিয়ে এনে নাগরিকত্ব দিয়েছিল। তারই ধারাবাহিকতায় বিএনপি পরবর্তী সময়ে এই রাজাকারদেরকে মন্ত্রীত্ব দান করে তাদের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দেয়।
হানিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে নির্বাচনের আগে ইশতিহারে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের ঘোষণা দিয়েছিলেন। ইতোমধ্যে অনেক যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সম্পন্ন হয়েছে।। যুদ্ধাপরাধের দায়ে এই দলকে বিচারের আওতায় আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, আইন সংশোধনের মাধ্যমে জামায়াত ইসলামীকে যুদ্ধাপরাধী দল হিসেবে চিহ্নিত করে শাস্তি দিলে দেশ রাজাকার মুক্ত হবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, জেলা প্রশাসক সৈয়দ বেলাল হোসেন, পুলিশ সুপার প্রলয় চিসিম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুজিবল ফেরদৌস, মুক্তিযোদ্ধা জেলা কমান্ড নাসিম উদ্দিন প্রমুখ।