শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:০৮ ঢাকা, মঙ্গলবার  ১৯শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং

মোস্তফা মোরশেদ আকাশ-স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী
চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশ-স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী, ছবি ফেসবুকের।

আত্মহত্যার প্ররোচনা: মিতুকে রিমান্ডে চায় পুলিশ

চট্টগ্রামে তরুণ চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশের আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় গ্রেফতার তার স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরীকে সাত দিনের রিমান্ডে চায় পুলিশ। রিমান্ড আবেদন করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চাঁন্দগাও থানার এএসআই আবদুল কাদের।

শনিবার চট্টগ্রামের মেট্রোপলিটন আদালতে এ আবেদন করা হয়েছে। এ বিষয়ে বিকালে শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।

একাধিক পুরুষের সঙ্গে স্ত্রীর দিনের পর দিন পরকীয়া কুরে খাচ্ছিল ডা. মোস্তফা মোরশেদ আকাশকে। যন্ত্রণা এতটা প্রকট হয়ে উঠেছিল যে, শেষ পর্যন্ত স্ত্রীকে পাপের পথ থেকে ফেরাতে না পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন তরুণ সম্ভাবনাময়ী এ চিকিৎসক।

নগরীর চান্দগাঁও থানা এলাকার ২ নম্বর সড়কের ২০ নম্বর বাসা থেকে বৃহস্পতিবার সকালে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ডা. আকাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের অ্যানেস্থেসিয়া বিভাগে চিকিৎসা কর্মকর্তা ছিলেন। তিনি চন্দনাইশ উপজেলার বাংলাবাজার বরকল এলাকার মৃত আবদুস সবুরের ছেলে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতেই গ্রেফতার হন তার স্ত্রী তানজিলা হক মিতু।

শুক্রবার বিকালে মিতুসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগে চান্দগাঁও থানায় মামলা করেছেন আত্মহত্যাকারী চিকিৎসকের মা জমিরা খানম। মামলায় মিতু, তার বাবা আনিসুল হক চৌধুরী, মা এবং আমেরিকা প্রবাসী এক বোন ও মিতুর দুই ছেলে বন্ধুকে আসামি করা হয়েছে।