ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:০৪ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

আছাদুজ্জামান মিয়া
ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, ফাইল ফটো

“আত্মরক্ষার্থে গুলি করতে অনুমতি লাগবে না ডিএমপির”

চেকপোস্ট কিংবা টহলকালে আক্রান্ত হলেই গুলি চালাতে পারবেন পুলিশ সদস্যরা। এ জন্য পূর্ব অনুমতি লাগবে না। ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনারের সঙ্গে ডিএমপির বিভিন্ন বিভাগের উপকমিশনার ও অতিরিক্ত উপকমিশনারদের এক বৈঠকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়।
বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর পুলিশ সদর দফতরে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে চেকপোস্ট বসানোর সময় অন্তত একটি অস্ত্রে গুলিভর্তি রাখতে বলা হয়।
বৈঠক সূত্র বলছে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি যেন না হয় সে বিষয়ে ডিএমপি কমিশনার নির্দেশনা দিয়েছেন। নিরাপত্তা জোরদার করতে নজরদারি বাড়াতে বলা হয়েছে।
বৈঠকে কমিশনার বলেছেন, টহল বা চেকপোস্টে পুলিশ গুলিবিদ্ধ হবে এবং সন্ত্রাসীরা গুলি করে চলে যাবে; পুলিশ গুলি করবে না, এটা হতে পারে না। নিজেদের রক্ষায় গুলি চালাতে হবে। এ ক্ষেত্রে কারও অনুমতি লাগবে না।
পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য না থাকলে চেকপোস্ট না বসানোর জন্যও বৈঠকে বলা হয়েছে। তল্লাশি চৌকিতে দায়িত্ব পালনকালে পুলিশ সদস্যদের বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট পরতে বলা হয়েছে।
যদিও অফিসিয়ালি এ ধরনের নির্দেশনা জারি করা হয়নি। তবে আন-অফিসিয়ালি পুলিশ সদস্যদের সতর্ক করা হয়েছে।
২২ অক্টোবর রাজধানীর গাবতলীতে চেকপোস্টে সন্ত্রাসীদের চুরিকাঘাতে পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক ইব্রাহিম নিহত হন। তার ১৩ দিনের মাথায় ৪ নভেম্বর সাভারের আশুলিয়ায় একইভাবে চেকপোস্টে পুলিশের ওপর হামলা করে সন্ত্রাসীরা। এতে কনস্টেবল মুকুল হোসেন নিহত হন। আহত হন নূরে আলম নামে এক পুলিশ সদস্য।