ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:০২ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

আজ ঘোষিত হতে যাচ্ছে আলোচিত রাজন হত্যা মামলার রায়

ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে শিশু সামিউল আলম রাজন হত্যা মামলার রায়। সিলেটের মহানগর দায়রা জজ আদালতে স্বল্পতম সময়েই ঘোষিত হতে যাচ্ছে আলোচিত এ হত্যা মামলার রায়। অতীতে এত দ্রুততম সময়ে সিলেটের আদালতে কোন হত্যা মামলার রায় ঘোষিত হয়নি বলে আইনজীবীরা জানিয়েছেন। এমনকি দ্রুত বিচার আদালতেও এমন রায় বিরল। আইনজীবীদের কেউ কেউ জানিয়েছেন, শুধু সিলেটেই নয় বাংলাদেশে কোনো দায়রা জজ আদালতে হত্যা মামলার রায় এত দ্রুত ঘোষণা হয়নি। আইনজীবীরা জানিয়েছেন, আদালতে চার্জগঠনের দিন থেকে রায় ঘোষণা পর্যন্ত ১৭ কার্যদিবসেই শেষ হচ্ছে মামলার কার্যক্রম। আজ হচ্ছে সেই রায় ঘোষণার দিন। দ্রুততম সময়ের মধ্যে আদালতে চার্জগঠন, সাক্ষ্যগ্রহণ, সাক্ষী জেরা, আসামি শনাক্তকরণ ও যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করা হয়েছে। আদালতে যথেষ্ট যুক্তি উপস্থাপনের সুযোগ পেয়েছেন উভয় পক্ষের আইনজীবীরা। ২৫শে অক্টোবর কেবল যুক্তি উপস্থাপনের সুযোগ দেয়া হলেও পরে ন্যায়বিচারের স্বার্থে আদালত টানা ৩ দিন গড়ে ৪ ঘণ্টা করে যুক্তি এবং খণ্ডন শুনেন। আইনজীবীরা মনে করছেন, ন্যায়বিচারের স্বার্থেই বেশি সময় নিয়ে সাক্ষ্যগ্রহণ ও যুক্তি খণ্ডনের সুযোগ মিলেছে। আর যুক্তিতর্কের পর উভয় পক্ষের আইনজীবীদের উপস্থিতিতেই রায় ঘোষণার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। সিলেটের শিশু সামিউল আলম রাজন নির্মম হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে গত ৮ই জুলাই। এরপর আদালতে চার্জশিট দাখিল করার পর সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক আকবর হোসেন মৃধা ২২শে সেপ্টেম্বর ১৩ আসামির বিরুদ্ধে চার্জগঠন করেন। ওই সময় আদালতে প্রধান আসামি কামরুলের পক্ষে আইনজীবী উপস্থিত না থাকলেও রাষ্ট্রপক্ষ থেকে ডিফেন্স আইনজীবী দেয়া হয়। আর ১লা অক্টোবর থেকে আদালত সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু করেন। ৩৮ সাক্ষীর মধ্যে ৩৬ সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। ১৮ই অক্টোবর পর্যন্ত আদালত টানা ১০ কার্যদিবসে সাক্ষ্য গ্রহণপর্ব শেষ করেন। সর্বশেষ সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মহানগর ডিবি ইন্সপেক্টর সুরঞ্জিত তালুকদারের। প্রায় ৫ ঘণ্টার সাক্ষ্য গ্রহণকালে তাকে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা জেরা করেছেন। এ মামলায় আসামিপক্ষের আইনজীবী ৭ জন। সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান হাবিবের নেতৃত্বে ৭ সদস্যের আইনজীবী আসামির পক্ষে আদালতে লড়াই করেন। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট মফুর আলী। পিপি