ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:১০ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২৪শে মে ২০১৮ ইং

আগামীকাল থেকে সুপ্রিমকোর্ট খুলছে

শীর্ষ মিডিয়া ১৮ অক্টোবর ঃ   ঈদ-উল আযহা ও শারদীয় দূর্গাপূজার দীর্ঘ ছুটি শেষে সুপ্রিমকোর্ট আগামীকাল থেকে খুলছে।  গত ২১ সেপ্টেম্বর থেকে এ ছুটি শুরু হয়। ছুটি শেষে আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীদের পদভারে আবারো মূখরিত হবে সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গন। ছুটিকালীন জরুরি মামলা সংক্রান্ত বিষয়াদি নিস্পত্তির জন্য অবকাশকালীন বিচারিক বেঞ্চে মামলার শুনানি হয়েছে। ইতোমধ্যে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে মামলা শুনানির জন্য বিচারিক বেঞ্চের এখতিয়ার নির্ধারণ করে দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি।  দীর্ঘ ছুটি বা অবকাশ শেষে বেঞ্চের এখতিয়ার নির্ধারণ সুপ্রিমকোর্টের একটি প্রথা।

গুরুত্বপূর্ণ মামলার মধ্যে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল মোহাম্মদ কামারুজ্জামানের আপিল মামলা শুনানি শেষে রায়ের জন্য অপেক্ষমান (সিএভি) রয়েছে। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল কামারুজ্জামানকে মৃত্যুদন্ড দিয়ে রায় ঘোষণা করে। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল দায়ের করে আসামিপক্ষ। খালাস চেয়ে আসামিপক্ষ ও দন্ড বহাল রাখার পক্ষে আর্জি জানিয়ে শুনানি শেষ করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাষ্টের অর্থ আত্মসাৎ সংক্রান্ত দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের বিরুদ্ধে আনা লিভ টু আপিলের (আপিল দায়েরের অনুমতি) শুনানির জন্য আগামী ২৭ নভেম্বর তারিখ ধার্য রয়েছে।

এদিকে বিচারপতিদের অভিশংসন ক্ষমতা সংসদে অর্পণ করার বিধান রেখে করা সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর বৈধতার চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আনা একটি রিট পিটিশন শুনানির জন্য রয়েছে। হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় গত ১৫ অক্টোবর রিটটি দায়ের করেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ড. ইউনুস আলী আকন্দ।
গত ২২ সেপ্টেম্বর সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বিলে সম্মতি জানিয়ে স্বাক্ষর করেন রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ। এর মাধ্যমে বিলটি আইনে পরিণত হয়। এর আগে গত ১৭ সেপ্টেম্বর ৩২৭ জন সংসদ সদস্যের বিভক্তি ভোটের মাধ্যমে পাস হয় ষোড়শ সংবিধান সংশোধন বিল-২০১৪। এ বিলের মাধ্যমে বিচারপতিদের অপসারণের ক্ষমতা ফিরে পায় সংসদ, যা ১৯৭২ সালের সংবিধানেই ছিলো। পরবর্তীতে সামরিক ফরমানের মাধ্যমে বিধানটি বাতিল করে সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের কাছে এই ক্ষমতা ন্যস্ত করা হয়। গত ১৮ আগস্ট সংবিধানের ১৬তম সংশোধনী সংক্রান্ত বিল মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পায়।