ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৬:২৪ ঢাকা, রবিবার  ২২শে এপ্রিল ২০১৮ ইং

আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক
আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক, ফাইল ফটো

আইন সচিবের ‘চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ স্থগিত’ করলো হাইকোর্ট

আইন মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের সচিব পদে আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হকের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ তিন মাসের জন্য হাইকোর্টের দেয়া স্থগিতাদেশ পরবর্তীতে ৮ সপ্তাহ পর্যন্ত স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত।

মঙ্গলবার বেলা আড়াইটার দিকে রাষ্ট্রপক্ষের করা এক আবেদনের প্রেক্ষিতে চেম্বার আদালতের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেন।

এর আগে এদিন বেলা সোয়া ১১টার দিকে এ সংক্রান্ত রুলের শুনানি নিয়ে বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও আতাউর রহমানের হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ আইন মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের সচিব পদে আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হকের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ তিন মাসের জন্য স্থগিত করেছিলেন।

এরপরই রাষ্ট্রপক্ষ হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে চেম্বার আদালতে এক আবেদন করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করলেন চেম্বার আদালত।

এর আগে রাষ্ট্রপক্ষের সময়ের আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ১৭ আগস্ট এ সংক্রান্ত রুলের শুনানি আজ ২২ আগস্ট পর্যন্ত স্থগিত করেন আদালত। গত ১০ আগস্ট থেকে এ নিয়ে শুনানি চলে।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন এজে মোহাম্মদ আলী। রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।

আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হকের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন আইনজীবী আশরাফ-উজ-জামান।

এরপর ৮ আগস্ট ওই চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের এর জবাব দিতে বলা হয়।

৬ আগস্ট আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হককে তার অবসরোত্তর ছুটি বাতিল করে দুই বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার।

পরদিন ৭ আগস্ট তার চাকরির মেয়াদের শেষ দিন ছিল। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে আইন মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

৭ আগস্ট কাজে যোগ দেন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক।

প্রজ্ঞাপন অনুসারে, ২০১৯ সালের ৭ আগস্ট পর্যন্ত আইন ও বিচার বিভাগের সচিব পদে বহাল থাকার কথা আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হকের।