শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১:১৭ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২১শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং

আইএস সন্দেহে মুসলিম যুবক আটক

ভারতের বেঙ্গালুরুর পুলিশ বলছে তারা ইসলামিক স্টেট বা আই এস-এর সন্দেহভাজন এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে। মেহেদি মাসরূর বিশ্বাস নামের ২৪ বছরের বাঙালী ঐ যুবক পেশায় প্রকৌশল। তিনি বেঙ্গালুরুর একটি বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানে কাজ করতেন। পুলিশ বলছে ওই যুবক টুইটারের মাধ্যমে আইএস-এর মতাদর্শ প্রচার করতেন। একইসাথে ভারত থেকে কর্মী সংগ্রহের কাজেও তিনি সাহায্য করতেন বলে পুলিশের সন্দেহ।

আটককৃত ওই যুবকের পরিবার কলকাতায় থাকে। কলকাতা বিমানবন্দরের কাছে কৈখালিতে বিশ্বাস পরিবারের বাড়ি।

তার ছেলে কখনই ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করেনি। বাবার ধারণা, তার ছেলেকে কেউ ফাঁসিয়েছে। দুবছর আগে তার ছেলে বেঙ্গালুরুতে চাকরী নিয়ে যায়। তিনি বলেন, তার স্ত্রী প্রায় সময়ই ছেলের কাছে গিয়ে থাকতেন। মাঝে মাঝেই তিনিও ছেলের কাছে গিয়ে থাকতেন। তার ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার ছেলে প্রায় বারো ঘণ্টা অফিসেই কাটায়। “শয়তানি করে ফাঁসিয়ে দিয়েছে ছেলেকে আর সংবাদ মাধ্যমও এর জন্য কিছুটা দায়ী।“ মেহেদি বাড়ীতে কখনোই ধর্ম নিয়ে অতিরিক্ত বাড়াবাড়ি করে নি, এমন কি তাকে একরকম জোর করেই মসজিদে নামাজ পড়তে পাঠাতে হত।

কর্ণাটকের রাজধানী বেঙ্গালুরু থেকে আজ (শনিবার) সকালে গ্রেপ্তার করা হয় মেহেদি মাসরূরকে। রাজ্য পুলিশের মহাপরিচালক লালরোখুমা পাচুয়াউ এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবী করলেও ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার কয়েকটি সূত্র নিশ্চিত করেছে যে মি. বিশ্বাসকে কয়েকদিন আগেই আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছিল।

পুলিশ বলছে মেহেদি বিশ্বাস শামী উইটনেস নামে যে টুইটার একাউন্টটি চালাতেন, সেটি সিরিয়া ও ইরাকের একটা অংশ দখল করে রাখা জঙ্গি সংগঠন আই এস-এর অন্যতম জনপ্রিয় অ্যাকাউন্ট। প্রায় ১৮ হাজার ফলোয়ার রয়েছে এই অ্যাকাউন্টের। বিবিসি