ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৮:৫৭ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

নাসিম
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম , ফাইল ফটো

‘অসাংবিধানিক উপায়ে সরকার পরিবর্তনের উদ্দেশ্যে হত্যাকান্ড’

আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিশেষ পরিস্থিতি সৃষ্টির মাধ্যমে অসাংবিধানিক উপায়ে সরকার পরিবর্তন করার উদ্দেশ্যেই দেশে ধারাবাহিক হত্যাকান্ড চালানো হচ্ছে।

আজ শুক্রবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে প্রতিযোগিতা করতে ব্যর্থ হয় বিএনপি-জামায়াত জোট। আজ যখন পরিস্থিতি স্থিতিশীল, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, তখন একটি মহল চক্রান্ত শুরু করেছে। ফলে ধারাবাহিকভাবে কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে। উদ্দেশ্য একটাই। শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারকে বিব্রত ও বিপর্যস্ত করা। এই সরকারকে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে চাপে ফেলা।

সকল হত্যাকান্ড নিয়ন্ত্রণে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সতর্ক ও কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান তিনি। আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বলেন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরও কঠোর হতে হবে। আমাদের নির্বাচিত সরকারকে সহযোগিতা করতে হবে। জনগণকে সঙ্গে নিয়েই এ ধরনের ঘটনা মোকাবেলা করতে হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যারা নৈরাজ্য করতে ব্যর্থ হয়েছে, তারাই গুপ্তহত্যার মাধ্যমে একাত্তরের ঘাতকদের বিচার বন্ধ করতে চায়। জাতীয়-আন্তর্জাতিকভাবে চাপ সৃষ্টি করেও এ বিচার বন্ধ করা যায়নি। এই বিচার হচ্ছে, হবে। অতীতে যেমন ১৪ দল সকল চক্রান্ত মোকাবেলা করেছে। আজকেও বিএনপি-জামায়াত জোটের যে কোন চক্রান্ত জনগণকে সঙ্গে নিয়েই মোকাবেলা করবে।

বৈঠকে রাজধানীর কলাবাগান হত্যার ঘটনায় আগামী ৮ মে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক হত্যার ঘটনায় রাজশাহী মহানগরে ১৪ মে প্রতিবাদ সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ও ১৪ দলের দপ্তর সমন্বয়ক মৃণাল কান্তি দাস।

বৈঠকে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, ও জাহাঙ্গীর কবীর নানক, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, জাসদ- সভাপতি শরীফ নূরুল আম্বিয়া, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, বাসদ আহ্বায়ক রেজাউর রশিদ খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।