ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:২২ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৬ই আগস্ট ২০১৮ ইং

রাশেদ খান মেনন
বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, ফাইল ফটো

অসহায় মানুষের সেবায় অবহেলা মানবো না : মেনন

সমাজকল্যাণমন্ত্রী ও বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন সমাজসেবা কর্মকর্তাদের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, ‘কাজের পদ্ধতিগত ভুলে বা দায়িত্বে অবহেলার কারণে অসহায়, দুস্থ মানুষের কাছে সরকারের দেয়া সেবা পৌঁছতে দেরি হলে মেনে নেয়া হবে না।’

আজ রোববার ইস্কাটনে ঢাকাস্থ সুইড বাংলাদেশের সম্মেলন কক্ষে ঢাকা বিভাগীয় সমাজসেবা কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভায় সমাজকল্যাণ মন্ত্রী এ কথা বলেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত সচিব আবু মো. ইউছুফ, ঢাকা বিভাগ সমাজসেবা অফিসের পরিচালক তপন কুমার সাহা, ঢাকা বিভাগের মাঠ পর্যায়ের সকল কর্মকর্তাগণ।

সমাজকল্যাণমন্ত্রী মতবিনিময়ে সমাজসেবা কর্মকর্তাদের সংবিধানের আলোকে সমাজসেবামূলক কর্মকান্ড সম্পাদন করার নির্দেশনা দেন। এ সময় তিনি সকল কর্মকর্তাদের দেশের মানুষের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করার জন্য তাগিদ দেন।

মেনন বলেন, সমাজসেবা কেবল দাপ্তরিক কাজ নয়। এটি একটি মানবিক কাজ। সমাজসেবা অফিসে কাজ করতে গেলে প্রত্যেকেরই তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করার মানসিকতা রাখতে হবে।

সমাজকল্যাণমন্ত্রী ক্যান্সার, সিরোসিসসহ জটিল রোগীদের চিকিৎসা ভাতা বিলম্বে প্রদানের প্রতি উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ‘ক্যান্সার সিরোসিস রোগীরা অসুস্থ অবস্থায় আর্থিক সহায়তার জন্য সরকারের কাছে আবেদন করেন। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় যে, এখানকার দাপ্তরিক কাজের জটিলতার কারণেই সরকারের প্রদানকৃত অর্থ ভূক্তভোগী রোগী দেরিতে পান। এমনকি এটাও শোনা যায় যে, কোন কোন ক্ষেত্রে রোগী মারা যাবার পরও তার জন্য দেয়া অর্থ প্রাপ্তি ঘটে, যা অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়। এ রকম দাপ্তরিক সমস্যা দূর করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগগুলো খুব দ্রুত নিতে হবে।’

মন্ত্রী ঢাকা বিভাগীয় কর্মকর্তাদের মাধ্যমে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তাদের কাজের গতি ত্বরান্বিত করতে তাগিদ দিয়ে বলেন, ‘সমাজসেবা অধিফতরের চলমান কাজে যে সমস্যাগুলি রয়েছে তা এবছরের জুন মাসের মধ্যেই ভালো করে সম্পন্ন করার উদ্যোগ নিতে হবে। জুন ক্লোজিং হতে এখনও হাতে বেশ কিছু সময় রয়েছে। সুতরাং এই সময়ের মধ্যে অবশিষ্ট কাজগুলো সম্পন্ন করে দেখাতে হবে। কাজকে শুধু চাকরি হিসেবে দেখলে হবে না, মানবিক দায়িত্ব থেকে কাজ করতে হবে।’