ব্রেকিং নিউজ

রাত ১০:০২ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

অর্থনীতিকে গতিশীল করাই আমাদের লক্ষ্য : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তাঁর সরকার অর্থনীতিকে আরো গতিশীল করার মাধ্যমে দেশের অধিকতর উন্নয়নে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে সবার উন্নয়ন নিশ্চিত এবং দেশের অর্থনীতি গতিশীল করা।
আজ তাঁর কার্যালয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত অহন সেং-দু তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গেলে একথা বলেন শেখ হাসিনা।
বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।
প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতের উন্নয়ন সম্পর্কে বলেন, এ দেশের রফতানির মূল লক্ষ্য হবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি)। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইন্টারনেটসহ আইসিটি সুবিধা গ্রাম পর্যায় পর্যন্ত বিস্তৃতি হয়েছে।
দক্ষিণ কোরিয়ার উন্নয়নের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ কোরিয়ার অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিতে পারে। শেখ হাসিনা তাঁর কোরিয়া সফরের কথা স্মরণ করে বলেন যে, তিনি দেশটির উন্নয়ন দেখে অভিভূত হয়েছেন।
তিনি কোরিয়ার রাষ্ট্রদূতকে বাংলাদেশে অবস্থানকালে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।
বৈঠকে রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চৌকস নেতৃত্বে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক খাতের উন্নয়নের ভূয়ষী প্রশংসা করে বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়নের নতুন মডেল হতে পারে।
এ প্রসঙ্গে রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে কোরিয়া সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে এবং উন্নয়নের জন্য আরো সহযোগিতা করতে প্রস্তুত রয়েছে।
অহন সেং-দু আশা প্রকাশ করেন যে, বাংলাদেশ শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হওয়ার লক্ষ্য অর্জন করবে।
কোরিয়ায় কর্মরত বাংলাদেশীদের সম্পর্কে রাষ্ট্রদূত বলেন, তারা দক্ষতার সাথে কাজ করছে এবং কঠোর পরিশ্রমী। কোরিয়ায় প্রায় ১৪ হাজার বাংলাদেশী কর্মরত রয়েছে।
আইসিটি’কে অতিগুরুত্বপূর্ণ খাত হিসেবে উল্লেখ করে কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত বলেন, তার দেশ এ খাতে মহেশখালী ও কক্সবাজারকে ডিজিটাল দ্বীপে পরিণত করতে কাজ করে যাচ্ছে।
রাষ্ট্রদূত বলেন, কোরিয়া বাংলাদেশের শ্রমিকদের স্বাস্থ্যসেবা ও আবাসন সুবিধা নিশ্চিত করার সব ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে।
প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী অন্যান্যের মধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।