ব্রেকিং নিউজ

রাত ৩:৫৫ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

‘অমুসলিম নারীদের ধর্ষণের বিধান রয়েছে’! : অধ্যাপক সুয়াদ সালেহ

মিসরের কায়রোর বিখ্যাত আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামপন্থী নারী অধ্যাপক সুয়াদ সালেহ দাবি করেছেন, আল্লাহ মুসলিম পুরুষদের অমুসলিম নারীদের ধর্ষণ করার অনুমতি দিয়েছেন। তাদের লজ্জা দেয়ার জন্য মহান আল্লাহ এ অনুমোদন দিয়েছেন। তিনি টেলিভিশনে এক সাক্ষাত্কারে এ দাবি করেছেন। সংবাদমাধ্যম দি ইনকুইজিটরের বরাত দিয়ে জি নিউজ জানিয়েছে, যৌনদাসীদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের পথ আল্লাহ মুসলিম পুরুষদের জন্য খোলা রেখেছেন, এটা বিধানসম্মত। তবে সুদাহ সালেহ বলেন, কেবল মুসলিম ও তাদের শত্রুদের মধ্যে বিধিসম্মত যুদ্ধের সময় যৌনসম্পর্ক স্থাপনের জন্য নারীদের দাসী করা যেতে পারে। শত্রুর উদাহরণ হিসেবে এ অধ্যাপক ইসরায়েলের নাম বলেন। তাঁর মতে, ইসরায়েলের নারীদের যৌনদাসী বানানো এবং ধর্ষণ করা পুরোপুরি গ্রহণযোগ্য। এ অধ্যাপকের এমন মন্তব্যের পর শুরু হয়েছে বিতর্ক। অনেকেই বলছেন, ধর্মের অপব্যাখ্যা করেছেন তিনি। তাঁদের মতে, ইসলামের নামে মিথ্যা প্রচার চালাতেই এমন কথা বলা হচ্ছে।