Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১০:২১ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

মাহবুব-উল আলম হানিফ
আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি, ফাইল ফটো

‘অবৈধভাবে জন্ম হয়েছিল বিএনপির’ – হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ হানিফ বলেছেন, বিএনপির জন্ম হয়েছে অবৈধভাবে। কারণ বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে এ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। আর তাই বিএনপির নেতাদের মুখে গণতন্ত্রের কথা মানায় না।

তিনি আজ বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয় শ্রমিক লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় এ সব কথা বলেন।

বিএনপির উদ্দেশ্যে মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, ‘ মিথ্যা কথা বলে দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করে দেশকে অস্থিতিশীল করবেন না। কারণ দেশের মানুষ কখনো তা মেনে নেবে না।’

তিনি বলেন, ‘দেশের মানুষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের পক্ষে এবং সন্ত্রাস ও নাশকতার বিরুদ্ধে ঔক্যবদ্ধ রয়েছে। তারা বিএনপি-জামায়াতের যে কোন সন্ত্রাস ও নাশকতার জবাব দেয়ার জন্য প্রস্তুত।’

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. সামশুল আলম বকুলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, জাতীয় শ্রমিক লীগের কার্যকরি সভাপতি ফজলুল হক মন্টু ও সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম।

হানিফ বলেন, বিএনপি নির্বাচনে জিতলে কোন কথা বলে না। আর নির্বাচনে হারলে মিথ্যাচারের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনকে বিতর্কিত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ নির্বাচনের ভোট গ্রহনের শেষ সময় পর্যন্ত বিএনপি বলেছে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে। কিন্তু ভোটে তারা পরাজিত হওয়ার পরপরই কারচুপির অভিযোগ তুলেছে।

এ ধরনের অসুস্থ্য রাজনৈতিক সংস্কৃতি থেকে বিএনপিকে বের হয়ে আসার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বিএনপির আসল উদ্দেশ্য হলো নির্বাচন কমিশন এবং নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করা।’

তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তার পুত্র তারেক রহমানকে দুর্নীতির মামলা থেকে রক্ষা, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ এবং নির্বাচন বানচালের নামে জ্বালাও-পোড়াও এবং পেট্রোলবোমা দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা কখনো গণতন্ত্র হতে পারে না।
হানিফ বলেন, দেশের মানুষ কখনো গণতন্ত্রের নামে বিএনপির এ ধরনের সন্ত্রাস, নাশকতা ও জঙ্গিবাদকে মেনে নেবে না।

১০ জানুয়ারী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত করার আহবান জানিয়ে জাতীয় শ্রমিক লীগের নেতা কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশের মাটিতে ফিরে আসার মধ্য দিয়ে আমাদের স্বাধীনতা পূর্ণতা পেয়েছিল।

তিনি বলেন, দেশের লাখ লাখ লোক সেদিন তাদের প্রিয় নেতা বঙ্গবন্ধুকে বরণ করে নিয়েছিল। তাই এ দিবসের সাথে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও স্বাধীনতার আনন্দ জড়িত রয়েছে।

১০ জানুয়ারীর আওয়ামী লীগের জনসভাকে ঐতিহাসিক জনসভায় পরিণত করার জন্য জাতীয় শ্রমিক লীগের নেতা কর্মীদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন।