ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ২:৪৫ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

অবিরাম সংগ্রামের কোনো বিকল্প নেই

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

 

বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, অবিরাম সংগ্রামের কোনো বিকল্প নেই, দেশ আজ ভয়ঙ্কর পুলিশী রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। দলবাজ র‌্যাব, পুলিশ ও বিজিবির সেবাদাস কিছু কর্তাব্যক্তিরা বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের ক্রসফায়ারের নামে হত্যা করে দেশকে বধ্যভূমিতে পরিণত করেছে।  শনিবার বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক দীর্ঘ বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন। বিবৃতিতে ২০ দলীয় জোটের ডাকা ৭২ ঘন্টার হরতাল সফল করার আহ্বান জানান তিনি।
জাতিকে পুলিশী রিমান্ড থেকে মুক্ত করার জন্য অবিরাম সংগ্রামের কোনো বিকল্প নেই জানিয়ে সালাহ উদ্দিন আহমেদ বিবৃতিতে বলেন, ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ঢাকা পর্যন্ত দলবাজ কর্মকর্তা কর্মচারীদের তালিকা প্রণয়ন করছে। তিনি দাবি করেন, ২০ দলীয় জোটের গণতন্ত্র মুক্তি আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে সরকারই এধরনের নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড ঘটিয়ে বিরোধী দলের ওপর দায় চাপানো হচ্ছে।
বিএনপির এ যুগ্ম-মহাসচিব ৫ জানুয়ারির প্রহসনের নির্বাচন করে আওয়ামী লীগই রাজনৈতিক ভুল করেছে। সেই ভুলের খেসারত আওয়ামী লীগ ও তার দোসরদেরকেই দিতে হবে। জনগণ সেই দায় নেবে না। তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে অঘোষিত কারাগারে রুদ্ধ করে সরকারের গদি রক্ষার স্বপ্ন কোনদিনই পূরণ হবে না। গণআন্দোলনে বিজয়ের মধ্য দিয়ে জনগণ তাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রীকে মুক্ত করবেই।
তিনি বলেন, সাংবিধানিক, গণতান্ত্রিক ও নিয়মতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় আন্দোলনের সকল দরজা বন্ধ করে দিয়ে সরকারই জনগণকে বাধ্য করেছে রাজপথে অবিরাম সংগ্রামে লিপ্ত হতে।
বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, শুক্রবার রাতে গাইবান্ধার তুলশীঘাটে যাত্রীবাহী বাসে বর্বরোচিত পেট্রোল বোমা হামলার ঘটনায় খালেদা জিয়ার পক্ষে তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীদের গ্রেফতার করে বিচারের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি। হামলায় নিহত বাসযাত্রীদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। আহতদের সুস্থতা কামনা করছি।
সালাহ উদ্দিন বলেন, গণতন্ত্র মুক্তি আন্দোলনের বিজয় অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত চলমান অনির্দিষ্টকালের শান্তিপূর্ণ অবরোধ কর্মসূচির পাশাপাশি রোববার সকাল ৬টা থেকে বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত দেশব্যাপী ৭২ ঘণ্টার সর্বাত্মক হরতাল পালন করা হবে। তিনি দেশবাসীকে শান্তিপূর্ণভাবে পালনের আহ্বান জানান।