Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:৩৯ ঢাকা, বুধবার  ১৪ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

অবরোধের সংবাদ প্রকাশেও আপত্তি!

অবরোধ রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল বলে মন্তব্য করে এধরনের কর্মসূচির সংবাদ প্রচারে মিডিয়ার ওপর বিধি-নিষেধ চান আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত।

তিনি বলেন, ‘অবরোধ যারা দেয় আর যারা পালন করে উভয়ের জন্য শাস্তির বিধান রেখে আইন করতে হবে। এ ধরনের সহিংস ও নাশকতামূলক সংবাদ প্রচারে মিডিয়ার ওপর বিধি-নিষেধ আরোপ করার বিষয়েও ভেবে দেখার কথা বলেন তিনি।

শুক্রবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশের চলমান রাজনীতি বিষয়ে আলোচনা সভায়’ তিনি এ বিষয়টি ভেবে দেখার কথা বলেন।

সুরঞ্জিত বলেন, ‘সরকারের প্রতি আমার আহ্বান, অবরোধকে বেআইনি ও অগণতান্ত্রিক রাজনৈতিক কর্মসূচি ঘোষণা করুন। অবরোধ রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল। মানুষের ধৈর্যের একটা সীমা আছে, সবকিছুর একটা শেষ আছে।’

বিচারকদের বাড়িতে হামলার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘গতকাল দেশের বিভিন্ন জেলায় বিচারকদের বাড়িতে হামলা করা হয়েছে। আমাদেরকে এখনি বিচারকদের নিরাপত্তার বিষয়ে ভাবতে হবে। তাদের সার্বিক নিরাপত্তা আরো জোরদার করতে হবে। না হলে বিচার ব্যবস্থা হুমকির মধ্যে পড়বে।’

শীতের মৌসুমে বিএনপির অবরোধের সময় কৃষকরা মৌসুমী সবজি বিক্রি করতে পারছেন না অভিযোগ করে সুরঞ্জিত বলেন, ‘কৃষকদের বাজার নষ্ট করাই তাদের  উদ্দেশ্য। তাদের উদ্দেশ্য রপ্তানি ব্যাহত করে দেশের উন্নয়নের গতি রোধ করা।’

বঙ্গবন্ধু একাডেমি আয়োজিত এ আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা খন্দকার এমদাদুল হক সেলিম, হুমায়ন কবির মিজি প্রমুখ।