Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৩:২১ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

সুরাইয়া আক্তার
সুরাইয়া আক্তার এর ফেসবুক পাতা

অপপ্রচারে লিপ্ত কে এই নলছিটির সুরাইয়া?

‘সুরাইয়া আক্তার’ নামক এক ফেসবুক আইডি থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রশ্নবিদ্ধ ও হেয় প্রতিপন্ন করে পোষ্ট/স্ট্যাটাস দেয়া হয়েছে। ওই আইডিতে সাম্প্রদায়িক ও ধর্মীয় উস্কানিমূলক স্ট্যাটাসও দেখা গিয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে ‘সুরাইয়া আক্তার’ ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার বাসিন্দা।

গতকাল মঙ্গলবার (২৪/১০/২০১৭) তারিখ বেলা ১৩টা ৪৯ মিনিটের সময় ‘সুরাইয়া আক্তার’ নামক ফেসবুক আইডি থেকে ফরিদপুরের এসপি সুভাষ চন্দ্র সাহার বিরুদ্ধে দুদকের করা মামলা বিষয়ক একটি স্ট্যাটাস দেয়া হয়। সেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ‘এসপি সুভাষ চন্দ্র সাহাকে দেয়া পদক’ নিয়ে যৌক্তিকতার প্রশ্ন উত্থাপন করা হয়। তাঁর অনুসারীরা কেউ কেউ ওই স্ট্যাটাসে সরকারী সিদ্ধান্তের সমালোচনাও করছেন।

২৫ অক্টোবরে নেয়া স্ক্রিনশট

স্ট্যাটাসটিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক এসপি সুভাষ চন্দ্র সাহাকে পদক প্রদানের ছবিও আপলোড করে “দুর্নীতির মহারাজ সুভাষ চন্দ্র রাষ্টের সর্বোচ্চ পদক পেলেন কিভাবে?” শীর্ষক প্রশ্ন উত্থাপন করে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে মারাত্মকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়।

উল্লেখ্য, অবৈধভাবে উপার্জিত অর্থের অভিযোগে ফরিদপুরের এসপি সুভাস চন্দ্র সাহা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে গতকাল মানিলন্ডারিং আইনে মামলা করেছে দুদক। যা নিয়ে জনমনে ওই এসপি সম্পর্কে বিরূপ ধারণা সৃষ্টি হয়েছে। ঠিক একই দিনে অভিযুক্ত ওই এসপিকে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক পদক প্রদানের ছবি আপলোড করায় প্রধানমন্ত্রীকে জাতির সম্মুখে হেয় প্রতিপন্ন ও প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে। এতে প্রধানমন্ত্রীর ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করা হয়েছে।

এছাড়াও ওই ফেসবুক একাউন্টে বিগত ২১ অক্টোবর ৮টা ১৫ মিনিটে ‘শিক্ষা ব্যবস্থা’ নিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেয়া হয়েছে, যা চরমভাবে সাম্প্রদায়িক ও ধর্মীয় উস্কানিমূলক তথা সরকার বিরোধী এবং বিভ্রান্তিমূলক। ওই আইডিতে ক্ষেত্র বিশেষ পুলিশ, সরকার দলীয় নেতা ও ব্যক্তি বিশেষকে উদ্দেশ্য করে আক্রমণাত্মক নিন্দা-সমালোচনাও লক্ষণীয়।

ধারণা করা হচ্ছে ফেসবুক আইডিটি কেউ ভুয়া নামে পরিচালনা করছে এবং তাঁর অবস্থান নিশ্চিত হওয়া না গেলেও ঠিকানা ঝালকাঠির নলছিটিতে হতে পারে। কারণ তাঁর বন্ধু তালিকায় বেশিরভাগ নলছিটির মানুষ ও ঝালকাঠি জেলার বিশেষ করে নলছিটির ঘটনাবলী ফেসবুকের নিউজ ফিডে অগ্রাধিকার পাচ্ছে। এবং নলছিটিবাসী বেশ কয়েকটি আইডিতে সক্রিয় অংশ নিতে দেখা যায় সুরাইয়াকে।

সংগত কারণে ওই ছবি, মন্তব্যগুলো ও ধর্মীয় উস্কানির স্ট্যাটাস নিউজে দেয়া হল না। যা সুরাইয়া আক্তার এর ফেসবুক লিঙ্কে পাওয়া যাবে।  লিঙ্কঃ সুরাইয়া আক্তার